কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে কামরা থেকে ১০৭টি বিষধর সাপ উদ্ধার

বিষধর সাপ
বিষধর সাপ

আজবাংলা মালদা   শনিবার দুপুরের মালদা জিআরপি থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ডাউন কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের জেনারেল কামরা থেকে ১০৭টি বিষধর সাপ উদ্ধার করে ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় মালদা স্টেশন চত্বরে৷ খবর পেয়ে সাপগুলিকে নিজেদের হেপাজতে নিয়ে যায় বনদপ্তর৷মালদা টাউন জিআরপি থানার আইসি ভাস্কর প্রধান জানান, গোপন সূত্রে তাঁরা জানতে পারেন, ডাউন কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের জেনারেল কামরায় কিছু সাপ পাচার করা হচ্ছে৷ বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ মালদা স্টেশনের ১ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ট্রেন পৌঁছোলে একটি জেনারেল কামরায় তল্লাশি শুরু করেন তাঁরা৷ তখনই তাঁদের নজরে পড়ে একটি সন্দেহজনক বড়ো ব্যাগ৷ ব্যাগ খুলে দেখা যায়, তার ভিতর ছোটো ছোটো পুঁটুলি ও কৌটোয় রয়েছে প্রচুর সাপ৷ কিন্তু কোনও পাচারকারীকে তাঁরা ধরতে পারেননি৷ সাপগুলিকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন তাঁরা৷ খবর দেওয়া হয় বন দপ্তরকে৷ তবে কতগুলি সাপ রয়েছে, তার বাজারমূল্য কত কিংবা এই সব সাপ কী কাজে লাগে, সেসব তাঁরা জানেন না৷ সেটা বন দপ্তর বলতে পারবে৷ সাপ উদ্ধারের খবর পেয়ে মালদা স্টেশনে চলে আসেন বনকর্মীরা৷ দেখা যায়, উদ্ধার হওয়া সাপগুলির মধ্যে রয়েছে প্রায় ৮৫চি লাউডগা, ২টি কিং কোবরা, ৮টি ইন্ডিয়ান কোবরা ও ১২টি পাহাড়ি চিতি৷ বনকর্মীরা জানান, উদ্ধার হওয়া সাপগুলির বাজারমূল্য কয়েক লক্ষ টাকা৷ এদের বিষ ওষুধ তৈরিতে কাজে লাগে৷ এই ধরনের সাপের চামড়াও বাজারে বিক্রি হয়৷বনকর্মীরা৷ দেখা যায়, উদ্ধার হওয়া সাপগুলিকে জঙ্গলে ছেড়ে দেবেন বলে জানান বনদপ্তর কর্মীরা।