মালদা সীমান্তে দিয়ে গঙ্গায় কলার ভেলায় চাপিয়ে গরু পাচারের চেষ্টা আটক১২৩ টি গরু

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদাঃ বুধবার মালদার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত শোভাপুরের গঙ্গা নদী পথে কলার ভেলায় চাপিয়ে চলছিল গরু পাচার। অন্তত ২০০ টি গরু গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল বাংলাদেশে পাচারের উদ্দেশ্যে। বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার সূত্রের দাবি, এদিন ভোরে শোভাপুর সীমান্তের গঙ্গা নদী থেকে ১২৩ টি গরু আটক করা হয়েছে। গরু আটক করলেও পাচারকারীদের অবশ্য ধরতে পারেনি বিএসএফ। বিএসএফ সূত্রে খবর, মালদা, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনা সহ বাংলাদেশ সীমান্ত পথে গরু পাচার বন্ধ করতে যৌথভাবে নজরদারি চালাবে বিএসএফ ও পুলিশ। বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজি এস এস গুলেরিয়া বলেন, "বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের আইজি ওয়াই বি খুরানিয়ার নেতৃত্বে বিএসএফের উচ্চপদস্থ একটি প্রতিনিধিদল এদিন রাজ্য পুলিশ এর ডিরেক্টর জেনারেলের (ডিজি) সঙ্গে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।"
মালদার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত শোভাপুরের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে গঙ্গা নদী। গঙ্গার জল বাড়তেই এই সীমান্ত পথে দেদার গরু পাচার শুরু হয়েছে বলে অভিযোগ। স্থানীয় সূত্রে খবর, কলার ভেলায় গরু বেধে অভিনব কায়দায় গরু পাচার হচ্ছে নদীপথে। বিএসএফ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার ভোরের মধ্যে শোভাপুরের ওপারে থাকা মুর্শিদাবাদ জেলার পাহাঘাঁটি, ফুলতলা, লালপুর, ধানঘরা, কালামপুর ও ধুলিয়ান থেকে প্রায় দুশো গরু কলার ভেলায় বেঁধে গঙ্গার জলে নামিয়ে দেওয়া হয় বাংলাদেশে পাচারের উদ্দেশ্যে। বিএসএফের ৭৮ ব্যাটেলিয়ানের জওয়ানরা স্পিডবোট করে নদীতে তল্লাশি চালিয়ে ১২৩টি গোরু আটক করে এ দিন। তবে কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।