মিলবে ১৫ হাজার টাকা, শুধু বিড়ালের খোঁজ দিলেই

মিলবে ১৫ হাজার টাকা, শুধু বিড়ালের খোঁজ দিলেই

আজবাংলা   বন্ধ হয়েছে মালকিনের খাওয়া। কেঁদে কেটেই পাগল তিনি। কারন ফিরে আসেনি সে। সে মানে কিন্তু যে সে নয়। মালকিনের সাধের আদরের প্রিয় পোষ্য। তার প্রিয় পোষ্যকে ফিরিয়ে দিতে পারলেই মিলবে নগদ ১৫ হাজার টাকা। এখন সেই ‘সন্ধান চাই’ পোস্টারে ছড়াছড়ি উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর।

এবারে আসুন জেনে নেওয়া যাক, সেই প্রিয় আদরের পোষ্যটা কি? সেটি একটি বিড়াল। গোরক্ষপুরের পোস্টারে তার বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। এই প্রসঙ্গে মালকিন জানিয়েছে, বিড়ালের একজোড়া সবুজ চোখ আমাকে অবর্ণনীয় আনন্দের সন্ধান দেয়। সেই চোখে রয়েছে বাদামী ছোপ। এটাই সেই নিরুদ্দেশ মার্জারটির মূল বৈশিষ্ট্য। 

পোস্টারে দেওয়া হয়েছে ছবিও। সেই পোস্টার সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল হয়েছে। তাঁর সাধের পোষ্য হারিয়ে গেছে স্টেশন থেকে। এবারে জেনে যাক কি করে হারিয়ে গেল সে? এই বুধবার রাতে উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর স্টেশন থেকে পোষ্যটি নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। মালকিনের সঙ্গেই ছিল সে।

মালকিন ট্রেনের অপেক্ষা ব্যস্ত ছিল। সেই সময় বিড়ালটি কোন ফাঁকে কোথায় যে গিয়েছে, তিনি আর হদিশ এখনো অবধি পাননি। তাঁর হদিস পেতে তিনি নিজে স্টেশন চত্বরে খুঁজেছেন। গোরক্ষপুর স্টেশনের জিআরপির কাছ থেকে সাহায্য চেয়েছেন। তাঁর করা ওই পোস্টার এখন সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল।

সূত্র মারফৎ জানা গিয়ে্ছে, প্রথমে পোষ্যকে ফেরত পেতে ১১ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছিলেন। পরে সেই আর্থিক মূল্য বাড়িয়ে ১৫ হাজার টাকা করে দেন। এবারে মালকিনের নাম ইলা সরমা। তবে, তিনি কোন যেমন তেমন মানুষ নন কিন্তু। তিনি নেপালের প্রাক্তন নির্বাচন কমিশনার। এবারে আপনিও দেখুন যদি খোঁজ পান সেই বিড়ালের, তাহলে আপনিই পাবেন এক্কেবারে কড়করে ১৫ হাজার টাকা।