মহারাজা রঞ্জিত সিং -এর মূর্তিতে ভাঙচুর চালাল পাকিস্তানের মুসলিম যুবক

মহারাজা রঞ্জিত সিং -এর  মূর্তিতে ভাঙচুর চালাল পাকিস্তানের মুসলিম যুবক

পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচারের ঘটনা আজ সারা বিশ্ব জানে। নাবালিকা থেকে মহিলা, সবার উপরই অকথ্য নির্যাতন করা হয়। জোর করে ধর্মান্তরিত করার ঘটনা তো ঘটে প্রতিদিন।

এবার মৌলবাদী ইসলামিক ধর্মগুরুদের উসকানিতে মহারাজা রঞ্জিত সিং (Maharaja Ranjit Singh) -এর একটি মূর্তিতে ভাঙচুর চালাল এক মুসলিম যুবক। ভেঙে ফেললে বিখ্যাত ওই ভারতীয় শাসকের মূর্তির হাত।

শুক্রবার নিন্দনীয় এই ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের লাহোরে। পরে বিষয়টি নিয়ে প্রবল বিতর্ক তৈরি হওয়ায় অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কিছুদিন আগেই প্রয়াত হয়েছে পাকিস্তানের কুখ্যাত ইসলামিক মৌলবাদী চিন্তাধারার প্রচারক মৌলানা খাদিম হুসেন রিজভি (Maulana Khadim Hussain Rizvi)।

কিন্তু, তার ছড়ানো বিষ যে পাকিস্তানের জনমানসে আজও বর্তমান তার জ্বলজ্যান্ত প্রমাণ পাওয়া গেল। কুখ্যাত ওই মৌলবাদীর ভাষণে উজ্জীবিত হয়ে ২০১৯ সালে লাহোর দুর্গে বসানো মহারাজা রঞ্জিত সিংয়ের মূর্তিটি ভেঙে ফেলল স্থানীয় এক যুবক।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পরেই প্রবল উত্তেজনা তৈরি হয় লাহোর শহরে। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝতে পেরে লাহোরের হরবংশপুরা এলাকার বাসিন্দা অভিযুক্ত জাহিরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পরে এই বিষয়ে জেরা করা হলে জাহির নামে ওই যুবক জানান, প্রয়াত ধর্মগুরু রিজভি একবার বলেছিলেন নিজের শাসনকালে প্রচুর মুসলিমকে নির্বিচারে হত্যা করেছিলেন মহারাজা রঞ্জিত সিং। এই কারণেই লাহোর দুর্গে থাকা মূর্তিটি ভাঙচুর করেছে সে।