পাকিস্তানের পেশোয়ারে নৃশংসভাবে খুন করা হল শিখ চিকিত্‍সককে

পাকিস্তানের পেশোয়ারে নৃশংসভাবে খুন করা হল শিখ চিকিত্‍সককে

পাকিস্তানের পেশোয়ারে নৃশংসভাবে খুন করা হল শিখ চিকিত্‍সককে। ইউনানি চিকিত্‍সা পদ্ধতির হাকিম ওই শিখ যুবকের নাম সর্দার সত্‍নাম সিং। বৃহস্পতিবার নিজের ক্লিনিকে বসেছিলেন তিনি। সেইসময় আচমকা কিছু বন্দুকবাজ এসে তাঁকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে চম্পট দেয়। শরীরের চারটি বুলেট লাগে তাঁর। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে আফগানিস্তানের কুখ্যাত ইসলামিক স্টেট খোরাসান।

খুনের দিনই সোশ্যাল মিডিয়ায় হাকিমের মৃত্যুর দায় স্বীকার করে আইএস-কে। এই ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে পেশোয়ারের শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যে। উল্লেখ্য, এই খোরাসানই কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে আত্মঘাতী গাড়ি বিস্ফোরণ করে প্রায় ২০০ জন মানুষকে মেরে দেয়। নিহতদের মধ্যে ছিলেন মার্কিন সেনার ১৩ জন জওয়ান। সত্‍নাম এলাকায় যথেষ্ট জনপ্রিয় ছিলেন। ধর্মান্দর ফার্মেসি নামে চিকিত্‍সালয় চালাতেন তিনি।

পেশোয়ারের চারসাদা রোডে সেই ক্লিনিকে অনেক রোগীই আসতেন। গত ২০ বছর ধরে এই শহরে থাকতেন সত্‍নাম। পেশোয়ার শহরে প্রায় ১৫ হাজার শিখের বাস। এই শহরে অধিকাংশ সিখ বাসিন্দাই ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। কেউ কেউ আবার ক্লিনিকও চালান। সত্‍নামের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের জন্য খাইবার পাখতুনখোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মাহমুদ খান তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন দ্রুত আততায়ীদের খুঁজে বের করতে।