অভিষেককে মামলায় অমিত শাহকে হাজিরা সমন পাঠাল রাজ্যের বিশেষ আদালত

অভিষেককে মামলায় অমিত শাহকে হাজিরা সমন পাঠাল রাজ্যের বিশেষ আদালত

তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে হাজিরা দেওয়ার সমন পাঠাল আদালত। বিধাননগরে রাজ্যের সাংসদ, বিধায়কদের জন্য গঠিত বিশেষ আদালতের তরফে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি, সোমবার সকাল ১০টায় অমিতকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে৷

বিজেপি-র রাজ্য দফতর ৬ মুরলীধর সেন লেনের দফতরে ওই সমন এসেছে। তবে এই চিঠি পাওয়ার পরে অমিত কি সত্যিই আদালতে হাজিরা দেবেন? রাজ্য বিজেপি-র মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘অমিত’জি আদালতে আসবেন কি না সেটা আইনজীবীরা ঠিক করবেন। তবে আমরা মাঠেও আছি, কোর্টেও আছি। আইনের জবাব আইনের পথেই হবে। তৃণমূল রাজনৈতিক ভাবে পারছে না বলেই আদালতের পথে হাঁটছে।’’

এই সমন প্রসঙ্গে অভিষেকের আইনজীবী সঞ্জয় বসু জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের ১১ অগস্ট কলকাতার মেয়ো রোডে হওয়া বিজেপি-র একটি জনসভায় অমিতের মন্তব্য প্রসঙ্গেই এই মামলা। সেই বক্তব্যে, অমিত অভিষেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন চিটফান্ড সংস্থার দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার অভিযোগ তোলেন। সঞ্জয় জানিয়েছেন, অমিতের সেই বক্তব্য দেশের সর্বত্র সংবামাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল।

আর তাতেই অভিষেকের সম্মানহানী হয়। ওই বক্তব্যের পরে পরেই ২০১৮ সালের ২৮ অগস্ট ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০০ ধারায় অভিযোগ তুলে মামলা করা হয়। প্রসঙ্গত, বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি-র অনেক নেতাই অভিষেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার অভিযোগ তুলছেন। এ নিয়েও আইনি পদক্ষেপ করেছেন অভিষেক।

একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারলে ফাঁসিতে যেতেও তিনি রাজি আছেন। তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের প্রমাণও চেয়েছেন অভিষেক। শুক্রবার একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই প্রসঙ্গে অমিত বলেন, ‘‘প্রমাণ আমি দেব না। দেবে তদন্ত সংস্থা। তবে তখন যেন দিদি সেটাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং প্রতিহিংসাপরায়ণ না বলেন।’’