নদীয়ায় চুরি করতে এসে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেল বাচ্চা সহ এক মহিলা

নদীয়ায়  চুরি করতে এসে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেল বাচ্চা সহ এক মহিলা

নবদ্বীপ   চুরি করতে এসে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেল বাচ্চা সহ এক মহিলা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকালে নদীয়ার নবদ্বীপ থানার বিষ্ণুপুর এলাকায়। অভিযোগ, এই দিন সকালে এক মহিলা কোলে সদ্যোজাত শিশু ও  আনুমানিক  বছর দশেকের  এক বালককে নিয়ে প্রথমে দোল গোবিন্দপুর এলাকায় একটি বাড়ি থেকে দুটি মোবাইল চুরি করে।

বিষয়টি বুঝতে পেরে এলাকাবাসীরা ওই মহিলাকে তারা করলে সে পালিয়ে বিষ্ণুপুর এলাকায় চলে আসে। সেই সময় বিষ্ণুপুরের বাসিন্দা গনেশ দাসের পরিবারের লোকজন নিজের বাড়িতে সদ্যজাত শিশু ও বালক সহ আটকে রাখে ওই মহিলাকে। এরপর স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানের মাধ্যমে খবর দেওয়া হয় নবদ্বীপ থানায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মহিলা-শিশু সহ ওই বালকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় নবদ্বীপ থানার পুলিশ।

ধরা পড়ে যাওয়ার পর ক্ষুব্ধ জনগণের হাত থেকে রক্ষা করতেই মূলত অভিযুক্ত  মহিলা শিশু ও বালকটি কে উদ্ধার করে নিজের বাড়িতে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন দাস পরিবারের সদস্যরা বলে জানা গিয়েছে ওই পরিবার সূত্রে। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে গনেশ দাস এর বাড়ি থেকে সোনার অলংকার ও নগদ অর্থ সহ প্রায় 4 লাখ টাকা চুরি হয়ে যায়।

এরপর সম্পূর্ণ বিষয়টি জানিয়ে লিখিত আকারে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় দাস পরিবারের পক্ষ থেকে। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই এই দিন সকালে ওই এলাকায় ফের চুরির ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে সম্পূর্ণ এলাকা জুড়ে। সম্পূর্ণ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।