কালিম্পঙে এসে হারানো প্রেম ফিরে পেলেন অভিনেত্রী করিনা

কালিম্পঙে এসে হারানো প্রেম ফিরে পেলেন  অভিনেত্রী করিনা

শ্যুটিংয়ের কাজে কালিম্পঙে এসেছেন Bollywood বলিউড অভিনেত্রী করিনা কপূর Kareena Kapoor। সে নিয়ে আপ্লুত বাঙালি ভক্তরা। প্রত্যেক মুহূর্তে করিনা কোথায় যাচ্ছেন, কী খাচ্ছেন সেই খবর পেতে উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন সকলে। তার মধ্যে করিনার নিজেরও আনন্দিত হওয়ার কারণ ঘটে গেল। বঙ্গ সফরে এসে বহু পুরনো এক সহপাঠীর সঙ্গে দেখা অভিনেত্রীর। বৃহস্পতিবার আপ্লুত হয়ে নিজেই সে খবর দিলেন তিনি।

ছবি শেয়ার করলেন স্কুলবেলার। সেই দেখে ভালবাসায় ভরিয়ে দিলেন স্কুলের প্রাক্তনী থেকে শুরু করে করিনার পরিবার-পরিজন। করিনার বয়স তখন ১৪ বছর। উত্তরাখণ্ডের দেহরাদূনের ওয়েলহাম গার্লস স্কুলে পড়ার সময় প্রাণের বন্ধু ছিলেন সেই কালিম্পং কন্যা। ১৯৯৬ সালে স্কুল থেকে একসঙ্গে রাজস্থান ভ্রমণে গিয়েছিলেন করিনারা। শ্যুটিং স্থল থেকেই সেই স্মৃতি ভাগ করে নিলেন অভিনেত্রী।

একই ফ্রেমে রয়েছেন সেই বান্ধবী-সহ আরও কয়েকজন। জীবনের ঘোড়দৌড়ে কে কোথায় ছিটকে গিয়েছিলেন খেয়াল ছিল না। এতদিন পর কালিম্পঙে এসে দেখা হল অভিন্ন হৃদয় দুই বন্ধুর। সেই সঙ্গে এক লহমায় আগল খুলে গেল স্কুল জীবনের স্মৃতির।  একবার একটি সাক্ষাৎকারে করিনা জানিয়েছিলেন, মা ববিতা তাঁকে জোর করে বোর্ডিং স্কুলে ভর্তি করিয়ে দেন।

কারণটা ছিল আরও মজার। কিশোরী করিনার তখন একটি ছেলেকে মনে ধরেছিল। বিভিন্ন বাহানায় করিনা বেরিয়ে দেখা করতেন তাঁর সঙ্গে। ববিতা বাড়ি না থাকলে তালা বন্ধ করে রেখে যেতেন মেয়েকে। সেই তালা ভেঙেও বেরিয়ে গিয়েছিলেন একবার, প্রেমের তাড়নায়। এর পরই একাকিনী মা ববিতা আর ঝুঁকি নেননি।

মেয়েকে পাঠিয়ে দেন তৎকালীন নাম করা স্কুল দেহরাদূনের ওয়েলহাম গার্লস-এ।  তার পর জীবনটা বদলে গিয়েছিল করিনার। আজ সাফল্যের চূড়োয় পৌঁছে সে কথা বার বার স্বীকার করেন অভিনেত্রী। কাজের জগৎ যে ভাবে সামলান, যে ভাবে প্রতি মুহূর্তে পরিস্থিতির মোকাবিলা করেন তাও স্কুলেরই শিক্ষায়। সেই সঙ্গে পাওনা ওয়েলহাম কন্যাদের সখ্য।

যা আজও ভুলতে পারেননি অভিনেত্রী।  'লাল সিং চাড্ডা'-র পর এবার করিনার ওটিটিতে অভিষেক পর্ব। পরিচালনায় সুজয় ঘোষ। জাপানি রহস্য রোমাঞ্চ ঔপন্যাসিক কিগো হিগাশিনোর ‘দ্য ডিভোশন অব সাসপেক্ট এক্স’ অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে এই ছবি, যার শ্যুটিং হচ্ছে কালিম্পঙে পাহাড়ের কোলে। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন করিনা।