রাজ্যে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমানোয় দাবি অধীরের

রাজ্যে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমানোয় দাবি অধীরের

এখন পেট্রোল (petrol) ও ডিজেলের (diesel) দাম কমালেও পরে আর দাম বাড়ানো হবে না, এই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে না বিজেপি (bjp)। উপনির্বাচনে ধাক্কা আর সামনে ৫ রাজ্যের নির্বাচন থাকাতেই দাম কমানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস (congress) সভাপতি অধীর চৌধুরী (Adhir Chowdhury)। পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমানোর প্রক্রিয়ায় পশ্চিমবঙ্গেরও সামিল হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

রাজ্যেরও পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমার ব্যাপারে সওয়াল করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, কেন্দ্রের আরও দাম কমানো উচিত, রাজ্য সরকারেরও এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত হওয়া উচিত। তিনি বলেছেন, ছত্তিশগড় সরকার অনেক আগেই ভ্যাট কমিয়েছে। পঞ্জাবের কংগ্রেস সরকারও ভ্যাট কমিয়েছে। তিনি বলেছেন, ছত্তিশগড় ও পঞ্জাব সরকার পারলে পশ্চিমবঙ্গেরও ভাবা উচিত।

অধীর চৌধুরী বলেছেন, পেট্রোল ও ডিজেলের দাম বিজেপি কমাল তখনই যখন তারা উপনির্বাচনে ধাক্কা খেল। তিনি বলেছেন, হিমাচল, রাজস্থান-সহ বিভিন্ন রাজ্যে ধাক্কা খাওয়ার পরে বিজেপির হুঁশ ফিরেছে। তিনি বলেছেন, সামনে পাঁচটি রাজ্যের নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই বিজেপি জ্বালানির দাম কমাতে বাধ্য হয়েছে।

কেন্দ্রের বিজেপি সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সারা দেশে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার প্রক্রিয়া ৩০ নভেম্বর শেষ হবে। যা নিয়ে অন্য বিরোধী দলগুলির মতো প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে কংগ্রেস। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেছেন, যে কারণে সারা দেশে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছিল, তা কি পরিবর্তন করতে পরেছে বিজেপি সরকার। তিনি বলেছেন অপুষ্টি কিংবা দারিদ্রতায় কোনও পরিবর্তন হয়নি।