কলকাতায় টিকাকরণ নিয়েও উঠল জালিয়াতির অভিযোগ, ধৃত ভুয়ো IAS

কলকাতায় টিকাকরণ নিয়েও উঠল জালিয়াতির অভিযোগ, ধৃত ভুয়ো IAS

করোনা (Coronavirus) কালে এবার টিকাকরণ শিবির নিয়েও উঠল জালিয়াতির অভিযোগ। কলকাতা পুরসভার অনুমতি ছাড়াই টিকাকরণ শিবিরের অভিযোগে এক ভুয়ো আমলাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে জাল পরিচয়পত্র এবং একটি নীল বাতি লাগানো গাড়িও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতভর তাকে জেরা করে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার কসবার ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডে একটি টিকাকরণ শিবির চলছিল। অভিযোগ, তাতেই উপস্থিত ছিল দেবাঞ্জন দেব নামে এক ব্যক্তি।

সে নিজেকে আইএএস (IAS) বলে পরিচয় দেয়। এছাড়াও ক্যাম্পে দাঁড়িয়েছিল নীল বাতি লাগানো কলকাতা পুরসভার গাড়ি। কলকাতা পুরসভার লোগো লাগানো মাস্ক এবং স্যানিটাইজারও ওই টিকাকরণ শিবির থেকে বিলি করা হয়। আচমকা এই শিবির দেখে সন্দেহ হয় পুলিশের। সে কারণে ঘটনাস্থলে হানা দিয়ে পুলিশ প্রথমে দেবাঞ্জন দেবকে আটক করে।

রাতভর জেরা করা হয় তাকে। তারপরই পুলিশ জানতে পারে, দেবাঞ্জন ভুয়ো পরিচয় দিয়ে টিকাকরণ শিবিরের আয়োজন করেছে। সে তথ্য জানার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। ওই টিকাকরণ শিবিরের অনুমোদন ছিল কিনা, তা জানতে কলকাতা পুরসভার (Kolkata Municipal Corporation) সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলবে পুলিশ।

কেনই বা দেবাঞ্জন এমন জালিয়াতি করল, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারাই বা ওই টিকাকরণ শিবির থেকে করোনার টিকা নিলেন, তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। কীভাবেই বা টিকা প্রাপ্তরা নাম নথিভুক্ত করলেন, সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া এই ঘটনায় দেবাঞ্জন ছাড়া আর কেউ জড়িত কিনা, তাও ভাবাচ্ছে পুলিশকে। ধৃত দেবাঞ্জনকে দফায় দফায় জেরা করে এ সমস্ত তথ্য পাওয়া যাবে বলেই আশা তদন্তকারীদের।