দুই আদিবাসী কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ তীব্র চাঞ্চল্য

দুই আদিবাসী কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ তীব্র চাঞ্চল্য

দোকানে যাওয়ার পথে একই সঙ্গে দুই আদিবাসী কিশোরীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল বীরভূমের রামপুরহাটে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, শনিবার সন্ধ্যায় ঘটেছে এই গণধর্ষণের ঘটনা। জানাজানি হয় পরের দিন।

জানা যাচ্ছে, গ্রামেরই এক দোকানে যাওয়ার পথে দুই কিশোরীকে তুলে নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। বীরভূমের রামপুরহাট থানার উপর রানিগ্রামের একটি মাঠে তুলে নিয়ে গিয়ে তাঁদের ওপর শারীরিক নির্যাতন চালায় কয়েকজন দুষ্কৃতী। এরপর রবিবার সকালে একজনকে অচেতন অবস্থায় এবং অন্যজনকে গুরুতর অসুস্থ আবস্থায় ওই মাঠ থেকে উদ্ধার করে এলাকাবাসী।

বর্তমানে দুই কিশোরী রামপুরহাট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। পরে জ্ঞান ফিরলে একজন হাসপাতালের চিকিত্‍সক ও পুলিশের কাছে গণধর্ষণের ঘটনা জানায়। এরপরই পুলিশ তদন্ত শুরু করে। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই ধর্ষণে জড়িত সন্দেহে রামপুরহাট থানার পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে।

পাশাপাশি অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশিও চালাচ্ছে পুলিশ। পুলিশের কাছে নির্যাতিতা দুই আদিবাসী কিশোরী জানিয়েছে, ৬-৭ জন দুষ্কৃতী ছিল শনিবার সন্ধ্যায়। তাঁরাই দুজনকে মুখে কাপড় চাপা দিয়ে জোর করে তুলে নিয়ে যায় ফাঁকা মাঠে। রবিবার রাতে নির্যাতিতা দুই কিশোরীর পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করে।