বোলপুরের বাউল বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ অমিত শাহর

বোলপুরের বাউল বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ অমিত শাহর

বোলপুর: 'হৃদমাঝারে রাখব/ছেড়ে দেব না', একতারার এই সুরে আর গানে বোলপুরের বাউল শিল্পী বাসুদেব দাস বরণ করে নিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। মাটির দাওয়ায় বসেই তা বেশ উপভোগও করলেন শাহ। সঙ্গে ছিলেন বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ অনুপম হাজরা। 

ছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিজেপি সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়, কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। এরপর মধ্যাহ্নভোজে তাঁদের পাত সাজিয়ে দেওয়া হল সপ্তপদে। কথা ছিল, বোলপুরে (Bolpur) গেলে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একেবারে স্থানীয় খাবার খাবেন বাউল পরিবারে। 

সেইমতো রবিবার অতিথি আপ্যায়ণের জন্য সকাল থেকেই তোড়জোড় শুরু হয় রতনপল্লির বাউল বাসুদেব দাসের পরিবারে। বাসুদেব জানিয়েছেন যে অমিত শাহর আগমনের খবর শুনে তিনি এতটাই খুশি যে নিজেই নেমে পড়েছেন রান্নার কাজে। তিনি নিজে বানিয়েছেন পায়েস, যা নিজেই তিনি পরিবেশ করে খাওয়াতে চান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। এছাড়া রান্নার হয়েছে নানারকমের ভাজা, তরকারি।

বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে আলুপোস্ত তৈরিতে। কারণ, অমিত শাহ চেয়েছিলেন, বীরভূমে বিশেষভাবে তৈরি আলুপোস্তের স্বাদ পেতে। এছাড়া বাংলার বিখ্যাত নলেন গুড়ের রসগোল্লাও প্রস্তুত। সবই হয়েছে কড়া নজরদারিতে। নির্দিষ্ট সময়ের খানিকটা পরেই অমিত শাহ পৌঁছন বাউল বাসুদেবের বাড়িতে। সেখানকার শিবমন্দিরে প্রথমে পুজো দেন।

এরপর দাওয়ায় এসে বসেন। তাঁকে উত্তরীয় পরিয়ে বরণ করে নেন বাড়ির মেয়েরা। একতারা বাজিয়ে তাঁকে জনপ্রিয় লোকসংগীত - 'তোমায় হৃদমাঝারে রাখব/ছেড়ে দেব না' শুনিয়ে স্বাগত জানান বাসুদেব দাস। গানবাজনার মাটিতে আসন পেতে বসে খাওয়ার আয়োজন। মাটির থালার উপর কলাপাতায় সাজানো - ভাত, মুগডাল, আলু-পটল-বেগুন ভাজা, আলুপোস্ত, পালংশাক, টক দই, নলেন গুড়ের রসগোল্লা, পায়েস। খাঁটি বাংলার এসব পদের স্বাদ দারুণ উপভোগ করলেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আর অতিথিসেবা করে উচ্ছ্বসিত বাউল পরিবার।