আরিয়ানের 'জামিনদার' জুহি চাওলা, তবুও ফেরা হল না শাহরুখ-পুত্রের

আরিয়ানের 'জামিনদার' জুহি চাওলা, তবুও ফেরা হল না শাহরুখ-পুত্রের

শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান খান (aryan khan) জামিন পেয়েছিলেন বৃহস্পতিবারই। মাদক মামলায় প্রায় একমাস পর আজই বাড়ি ফেরার কথা ছিল শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানের। ছেলেকে নিতে দুপুরেই আর্থার রোড জেলে পৌঁছে যান কিং খান। সঙ্গে ছিলেন শাহরুখের ঘনিষ্ঠ বন্ধু তথা কেকেআরের সহ মালকিন জুহি চাওলাও (Juhi Chawla)। আরিয়ানের জামিনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জায়গা নিয়েছেন জুহি (Juhi Chawla Aryan Khan)।

তিনিই আজ আরিয়ানের দায়িত্ব নিয়ে তাঁর জামিনদার হয়েছেন। তবে আরিয়ানের (Aryan Khan) জামিনের নথি পৌঁছতে দেরি হওয়ায় শুক্রবারও বাড়ি ফিরতে পারলেন না কিং খানের ছেলে আরিয়ান (Juhi Chawla Aryan Khan)। বৃহস্পতিবারই আরিয়ানকে (Aryan Khan) জামিন দেয় আদালত। কিন্তু আদালতের তরফে জামিনের প্রতিলিপি জেল কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছনো পর্যন্ত অপেক্ষা ছিল। শুক্রবার তা পৌঁছালেও সংশয় ছিল আজ বেরোতে পারবেন কিনা জেল থেকে।

কারণ বিকেল সাড়ে পাঁচটার মধ‍্যে রিলিজ অর্ডার জমা দিতে না পারলে ফেরা সম্ভব নয় আরিয়ানের (Aryan Khan)। দ্রুত গতিতে কাজ করে আইনজীবীদের দল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সাড়ে পাঁচটার মধ্যে আইনি জটিলতা সঙ্গে করে আরিয়ানকে ঘরে ফেরানো গেল না। শুক্রবার আদালত চত্বর থেকে বেরিয়ে জুহি (Juhi Chawla Aryan Khan) বলেন, "আমি অত্যন্ত খুশি যে খুব শিগগিরই আরিয়ান ঘরে ফিরবে। ওর ফেরাটা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা। আমরা অত্যন্ত স্বস্তি পেয়েছি।"  

আরিয়ানের জন‍্য এক লক্ষ টাকার বণ্ডে সই করতে হয় জুহি চাওলাকে (Juhi Chawla)। দীর্ঘ ২৬ দিন পর ছেলের সঙ্গে সামনাসামনি সাক্ষাত্‍ হওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন শাহরুখ (Shah Rukh Khan)। এর আগে জেলে আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করতে গেলেও দুজনের মাঝে ছিল গরাদ ও কাঁচের দেওয়াল। দিওয়ালি তথা নিজের জন্মদিনের আগেই ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারছেন শাহরুখ।

গত ২ অক্টবর গ্রেফতারির পরে ৮ অক্টোবর জেল হেফাজতে নেওয়া হয় আরিয়ানকে (Aryan Khan)। তারপর থেকে একাধিকবার জামিন খারিজের পর অবশেষে ২৮ অক্টোবর মাদক কাণ্ডে জামিন পেয়েছে শাহরুখ পুত্র। স্বাভাবিক ভাবেই মুখে হাসি ফুটেছে বাবা শাহরুখ ও মা গৌরী খানের। ছেলের জামিন মঞ্জুর হওয়ার পরেই আইনজীবীদের দলের সঙ্গে লেন্সবন্দি হন কিং খান।

বুক থেকে যে একটা ভার নেমে গিয়েছে তা তাঁর মুখ দেখেই বোঝা যায়। আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে ও তাঁর দলের সঙ্গে হাসিমুখে লেন্সবন্দি হন শাহরুখ। আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে সংবাদ মাধ‍্যমকে জানান, জামিনের রায় শুনে অত‍্যন্ত খুশি হয়েছিলেন শাহরুখ। তাঁর লড়াই সফল হয়েছে। 'সত্যের জয় হয়েছে'। তিনি আরো দাবি করেন, যেহেতু আরিয়ানের থেকে কোনো মাদক উদ্ধার হয়নি তাই এই গ্রেফতারি প্রথম থেকেই বেআইনি ছিল।