শপথ নিয়েই তৃণমূলের বিড়ম্বনা বড়িয়ে দিলেন বাবুল সুপ্রিয়!

শপথ নিয়েই তৃণমূলের বিড়ম্বনা বড়িয়ে দিলেন বাবুল সুপ্রিয়!

সবে শপথ নিয়েছেন তিনি। তারপরেই সাংবাদিক সম্মেলনে সেই পুরনো বিতর্ক আরও একবার উসকে দিলেন বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)। এক দলের টিকিটে জিতে অন্য দলে চলে যাওয়াকে অনৈতিক বলেই মনে করেন তিনি। সাংবাদিক সম্মেলনে যখন বাবুল এই কথা বলছেন, তখন ঠিক তাঁর পিছনে দাঁড়িয়ে ছিলেন বিজেপির টিকিটে জিতে আসা কালীয়াগঞ্জের বিধায়ক সৌমেন রায়।

বুধবার শপথ গ্রহণ করার পর সাংবাদিক সন্মেলনে বাবুল বলেন, "আমি সাংসদ পদ থেকে পদত্যাগ করে একপ্রকার রাজনীতি থেকেই অবসর নিয়েছিলাম। আমি কিন্তু ওই দলে থেকে তৃণমূলে যোগ দিইনি। এটা নৈতিকতার প্রশ্ন।" বাবুল সুপ্রিয় যখন এই কথা বলছেন ঠিক সেই সময় বিধানসভার প্রেস কর্নারে ঠিক তাঁর পিছনে দাঁড়িয়ে ছিলেন বিজেপির টিকিটে কালীয়াগঞ্জ থেকে জিতে আসা বিধায়ক সৌমেন রায়,

যিনি প্রায় মাস সাতেক আগে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন এবং এখনও বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করেননি। সৌমেন রায়কে দেখিয়ে বাবুল সুপ্রিয়কে দলবদলু নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি তখন একবার ঘাড় ঘুরিয়ে দেখে নেন সৌমেন রায়কে। তারপর বলেন, "এটা সম্পূর্ণ ভাবে আমার ব্যক্তিগত অভিমত। কালীয়াগঞ্জের বিধায়ককে বাবুলের মন্তব্য নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন,

"আমি তো বিজেপির-ই বিধায়ক। আমি শুধু বিরোধী দলনেতার কিছু অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করেছি।" শুভেন্দু অধিকারীর দিকে তোপ দেগে সৌমেন রায় আরও বলেন, "বিরোধী দলনেতা নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য বিধানসভায় তাঁর ঘরটিকে ব্যবহার করছেন। তিনি বিজেপি বিধায়কদের দিয়ে বিধানসভার কাজ পণ্ড করার জন্য চেষ্টা করতেন। শুধু তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা নেত্রীদের বিরুদ্ধে কীভাবে ইডি, সিবিআই হবে, তাই নিয়ে চেষ্টা চালিয়েছেন। আমি তার প্রতিবাদ করেছি শুধু।"