বগলামুখীর এই মন্ত্রটি প্রতিদিন জপ করলে জীবনে আসবে সাফল্য

বগলামুখীর এই মন্ত্রটি প্রতিদিন জপ করলে জীবনে আসবে সাফল্য

ভগবানের কাছে পৌঁছনোর একটাই মাত্র মাধ্যম, তা হল মন্ত্র। ব্যস্ত জীবনে সামান্য একটু সময় বের করে যদি মন্ত্র জপ করা যায়, তবে আপনিও পেতে পারেন অসাধারণ ফল। দশমহাবিদ্যার অষ্টম মহাবিদ্যা হল বগলামুখী দেবী (Baglamukhi )। বগলামুখী দেবী সিদ্ধবিদ্যা ও পীতাম্বরাবিদ্যা এই নামে প্রসিদ্ধ।

বগলামুখী দেবি পীতবস্ত্রা, পীতপুস্পপ্রীয়া, এবং পীতঅলঙ্কারধারিনি। দশমহাবিদ্যার অষ্টম মহাবিদ্যা হল মা বগলামুখী দেবী। বগলামুখীর আরাধনা করলে শত্রুদের বিনাশ, জীবনে সাফল্য এবং বিতর্কে জয়ী লাভ হয়। 

বগলামুখীর মন্ত্র সাধকের সমস্ত ইচ্ছা পূরণ করতে পারে। বগলামুখী মন্ত্র সমস্ত ধরণের বাধা থেকে মুক্তি দেয়, রোগ এবং দুর্ঘটনার দীর্ঘস্থায়ী সমস্যা থেকে রক্ষা করে এবং সুরক্ষা দেয়। কথিত আছে যে বগলামুখী মন্ত্রের নিয়মিত জপ অহং বিনাশ করে এবং শত্রুদের বিনাশ করে।

দেবী বগলামুখী হলেন মঙ্গলগ্রহের ইষ্টদেবী এবং দশমহাবিদ্যার শক্তিশালী এবং সহায়ক শক্তি । এক (দশমহাবিদ্যা মানে দশটি মহাক্ষমতা, দেবী দশমহাবিদ্যার মধ্যে নিহিত আছে দুর্গার দশশক্তির বিভিন্ন পরিসংখ্যান) ভারতীয় আধ্যাত্মিক ধর্মীয় দর্শনের সর্বোচ্চ শক্তি হলেন দেবী । দেবী বগলামুখীর ছবি সংগ্রহ না করতে পারেন, তাহলে আপনি দেবী দুর্গার কোন ছবি নিতে পারেন।

আপনি কি বুঝতে পারছেন, আপনার প্রচুর শত্রু? শত্রুর মোকাবিলা করা যাচ্ছে না। গৃহশত্রু, বহিঃশত্রু ও গুপ্তশত্রুতায় জেরবার অবস্থা। শত্রুদের হাত থেকে রক্ষা পেতে, যারা শত্রুতা করছে, তাদের মুখ চিন্তা করতে করতে এই মন্ত্রটি সকালে মা বগলামুখীর ছবির সামনে স্নানের পর ও সন্ধ্যায় পাঠ করলে অসাধারণ ফল পাওয়া যায়।

মন্ত্রটি হল :

“ওঁ হ্লীং বগলামুখী সর্ব দুষ্টানাং বাচং মুখং পদং স্তম্ভন,
জিহ্বাং কীলয় কীলয় বুদ্ধি বিনাশায় হ্লীং ওঁ স্বাহা” ||

দেবী হলেন সমস্ত সৃষ্টির কর্ত্রী। এই মহাবিশ্বের বিভিন্ন কার্য সম্পাদনের জন্য দেবী হাজারো রূপে আবির্ভূত হয়েছেন। দেবী অতীত, বর্তমান এবং ভবিষ্যতের প্রতিনিধিত্ব করেন। রাক্ষসদের ধ্বংস করেন এবং ভক্তদের রক্ষা করেন। দেবী মন্ত্র হল শক্তিশালী মন্ত্র যা আমাদের জীবনকে সুরক্ষিত করতে দেবী দুর্গার আশীর্বাদ পেতে জপ করেন ভক্তরা। বগলামুখী দেবীর মন্ত্রই ব্রম্ভাস্ত্রস্বরূপ । এমনকি এই মন্ত্রশক্তিতে সদাবিচরনশীল বায়ুরও গতিরোধ সম্ভব। প্রতিদিন ১০৮ বার বগলামুখী বীজ মন্ত্র ও ১১ বার বগলামুখী গায়ত্রী মন্ত্র জপ করলে শত্রু নাশ, মামলায় জয়লাভ, মঙ্গলের কুপ্রভাব থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

কীভাবে বগলামুখীর আরাধনা করবেন…

মন্ত্র জপের সুবিধা পেতে দেবীর মূর্তির সামনে বসে পূজা করতে হবে। হলুদের মালা বা রুদ্রাক্ষ ব্যবহার করা শুভ বলে মনে করা হয়। মন্ত্র জপ সমস্ত ধরণের ভয় এবং মানসিক সমস্যা দূর করে এবং একজন ব্যক্তিকে জীবনের সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম করে। শত্রু এবং অশুভ আত্মার ভয় দূর করে। বাড়িতে এবং পরিবারের সদস্যদের জীবনে সামগ্রিক শান্তি এবং সমৃদ্ধি প্রচার করতে সাহায্য করে। ঘরে পজিটিভ এনার্জি বাড়ায়। পরিবারের সকল সদস্যের জীবনে সুখ ও সাফল্য আসে। অশুভ শক্তি দূর করে এবং বাড়ির সামগ্রিক উন্নতির জন্য সকল প্রকার শুভকে প্রসারিত করে। পথের বাধা দূর করে সফলতা এনে দেয়।