অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন বিজেপির নবান্ন অভিযানে গ্রেফতার হওয়া বলবিন্দর সিং

অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন বিজেপির নবান্ন অভিযানে  গ্রেফতার হওয়া বলবিন্দর সিং

আজবাংলা     অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন বলবিন্দর সিং। বিজেপির নবান্ন অভিযানের সময় গ্রেফতার করা হয়েছিল বলবিন্দরকে। আড়াই হাজার টাকার ব্য়ক্তিগত বন্ডে তাঁকে জামিনে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে হাওড়া আদালত।উল্লেখ্য়, বিজেপির নবান্ন অভিযানের সময় হাওড়া ময়দান এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র-সহ বলবিন্দর সিংকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধরপাকড়ের সময় তাঁর পাগড়ি খুলে যায়।

যে দৃশ্য় সামনে আসতেই তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। একজন শিখ ধর্মাবলম্বীর পাগড়ি পুলিশ খুলেছে বলে অভিযোগ জানিয়ে সোচ্চার হয় গেরুয়া বাহিনী। পাশাপাশি এ ঘটনায় গর্জে ওঠে শিখ সংগঠনদের একাংশ। ধাক্কাধাক্কির সময়ই পাগড়ি আপনা থেকেই খুলে যায় বলে দাবি করে পুলিশ-প্রশাসন। এদিকে, এ ঘটনায় সোচ্চার হন পাঞ্জাবের মুখ্য়মন্ত্রী ক্য়াপ্টেন অমরিন্দর সিং, ক্রিকেটার হরভজন সিংয়ের মতো ব্য়ক্তিত্বরা।

এ ঘটনাকে ঘিরে তোলপাড় হয় রাজ্য় রাজনীতি। ক'দিন আগে রাজ্য়পালের দ্বারস্থ হন বলবিন্দরের স্ত্রী করমজিত্‍ কউর। নবান্ন অভিযানে অস্ত্র-সহ ধৃত বলবিন্দরের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করা হয়েছে বলে সোচ্চার হন রাজ্য়পালও। স্বামীর মুক্তির দাবিতে মুখ্য়মন্ত্রীর দফতরের সামনে ছেলেকে নিয়ে অবস্থানেরও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন বলবিন্দরের স্ত্রী।

সম্প্রতি, রাজ্য পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র। জানা যায়, সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় বেআইনি অস্ত্র সঙ্গে রাখা-সহ তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ তুলে নেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই পুলিশ করমজিত্‍তেও এই আশ্বাস দেয়।এমন আবহে বলবিন্দর সিংয়ের সঙ্গে সম্পর্কে মমত্বের প্রলেপ লাগে। বলবিন্দরের স্ত্রীকে পুজো উপলক্ষে সালওয়ার স্য়ুট উপহার দেন খোদ মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়।