ব্যাঙ্কিং একাধিক নিয়ম বদলাতে চলেছে ১ অক্টোবর থেকে

ব্যাঙ্কিং একাধিক নিয়ম বদলাতে চলেছে  ১ অক্টোবর থেকে

ব্যাঙ্কিং ও ফাইন্যান্সিয়াল সেক্টরের সঙ্গে যুক্ত একাধিক নিয়ম  ১ অক্টোবর থেকে বদলাতে চলেছে ৷ তিনটি ব্যাঙ্কের চেক বুক বদলানোর পাশাপাশি ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড সংক্রান্ত (New credit-debit card rule)বেশ কিছু নিয়মও বদলাবে ৷ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ১ অক্টোবর ২০২১ থেকে যে কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে অটো-ডেবিট ফেসিলিটির ক্ষেত্রে বেশি কিছু নতুন সিকিউরিটি ফিচার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে চলেছে ৷ নতুন নিয়ম অনুযায়ী, যাঁরা অটো ডেবিট ফেসিলিটি ব্যবহার করে থাকেন রেকারিং বিল বা ইএমআই পেমেন্টের জন্য তাঁদের ১ অক্টোবর থেকে অটো ডেবিট ট্রানজাকশন ম্যানুয়ালি করতে হতে পারে ৷

অ্যাক্সিস ও HDFC-সহ বেশ কিছু ব্যাঙ্কে আগে থেকে গ্রাহকদের আগামী ট্রানজাকশন ফেল হওয়ার সম্ভাবনার বিষয়ে অ্যালার্ট করে দিয়েছে ৷ HDFC ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য -HDFC ব্যাঙ্ক তাদের ওয়েবসাইটে লিখেছে,‘গ্রাহকদের সুরক্ষার জন্য রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করার জন্য নয়া সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে এসেছে ৷

১ অক্টোবর ২০২১ থেকে HDFC ব্যাঙ্ক তাদের ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডে( New credit-debit card rule)মার্চেন্ট ওয়েবসাইট বা অ্যাপে দেওয়া কোনও স্ট্যান্ডিং ট্রানজাকশন ততক্ষণ করবেন না যতক্ষণ অনুমতি দেওয়া হবে না ৷’ অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে,‘আরবিআই এর রেকারিং পেমেন্ট গাইডলাইন w.e.f. 20-09-21 অনুযায়ী, রেকারিং ট্রানজাকশনের জন্য আপনার অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কের কার্ডে স্ট্যান্ডিং ট্রানজাকশনকে অনুমতি দেওয়া হবে না ৷ নিরবচ্ছিন্ন পরিষেবার জন্য সরাসরি কার্ডের ব্যবহার করে মার্চেন্টকে পেমেন্ট করতে পারবেন ৷ 

কী এই নতুন নিয়ম ?

নয়া নিয়ম অনুযায়ী, ডেবিট, ক্রেডিট কার্ড (New credit-debit card rule), ইউপিআই ও অন্যান্য প্রিপেড পেমেন্ট ইনস্ট্রুমেন্টের (PPI) মাধ্যমে ৫০০০ টাকার কম সমস্ত অটো-ডেবিট ট্রানজাকশনে, সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অথেন্টিকেশনের জন্য নতুন একটি ফ্যাক্টর যুক্ত করেছে ৷ অন্যদিকে, ৫০০০ টাকার বেশি অটো-ডেবিট ট্রানজাকশনের জন্য গ্রাহকদের ওয়ান টাইম পাওয়ার্ডের (OTP) মাধ্যমে ম্যানুয়ালি অথেন্টিকেট করতে হবে ৷ এর জন্য সমস্ত স্টেক হোল্ডার্সদের ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ পর্যন্ত ফ্রেমওয়ার্ক পুরোপুরি লাগু করতে হবে ৷

পেমেন্টের কমপক্ষে ২৪ ঘণ্টা আগে গ্রাহকদের ব্যাঙ্কের তরফে মেসেজ বা ই-মেল পাঠানো হবে ৷ প্রি ট্রানজাকশন নোটিফিকেশনে কার্ড হোল্ডারকে মার্চেন্টের নাম, ট্রানজাকশনের অ্যামাউন্ট, ডেবিটের সময়, ট্রানজাকশনের রেফারেন্স নম্বর, ই-ম্যান্ডেট, ডেবিটের কারণের বিষয়ে জানানো হবে ৷

কী কী বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে?গ্রাহকদের সুনিশ্চিত করতে হবে, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের সঙ্গে সঠিক মোবাইল নম্বর রেজিস্টার্ড করা রয়েছে ৷ এই নম্বরে অ্যাপ্রুভল নোটিফিকেশন পাঠানো হবে ৷ নম্বর ভুল থাকলে নোটিফিকেশন পাবেন না এবং আপনার থেকে অ্যাপ্রুভাল না পেলে আপনার অটো ডেবিট আটকে যাবে ৷ এই ফ্রেমওয়ার্ক সমস্ত রেকারিং পেমেন্টের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে ৷