ভোটের আগে কলকাতায় নাশকতার চেষ্টা বানচাল করে দিলেন সেনা গোয়েন্দারা

ভোটের আগে কলকাতায় নাশকতার চেষ্টা বানচাল করে দিলেন সেনা গোয়েন্দারা

ভোটের আগে শহরে ফের নাশকতার চেষ্টা বানচাল করে দিলেন সেনা গোয়েন্দারা। ব্যাগে করে কৌটো বোমা (Bomb)পাচারের সময় ধরা পড়ে এক যুবক। তাকে হেস্টিংস থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে খবর। কী উদ্দেশে কলকাতায় (Kolkata) কৌটো বোমা পাচারের ছক ছিল, সঙ্গে আর কারা জড়িত, ধৃতকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে সেসবের হদিশ পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা।

সেনা গোয়েন্দা সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার বিকেলে তাঁদের কাছে খবর আসে, ব্যাগে করে কৌটো বোমা পাচারের ছক চলছে। এজেসি বোস রোডের উপর প্যাক করা কৌটো বোমার হদিশ মিলেছে। সঙ্গে সঙ্গে তল্লাশি চালিয়ে আধঘণ্টার মধ্যেই এক যুবককে হাতেনাতে ধরেন তাঁরা। জানা গিয়েছে, ধৃতের বয়স বছর তেইশ। বাড়ি ওয়াটগঞ্জে। পাচার করার জন্য সে নিয়ে আসছিল কৌটো বোমা।

এজেসি বোস রোডের উপর আরসিডিসির কাছে গোয়েন্দারা তাকে ঘিরে ধরে। সেখানেই এই বোমা একজনকে দেওয়ার কথা ছিল। তাকে হেস্টিংস থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। জেরা শুরু করেছে পুলিশ। ভোটের আগে রাজনৈতিক অশান্তি বাধানোর জন্য এই বোমা পাচারের ছক কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

চলতি মাসের প্রথম দিকে এই সেনা গোয়েন্দাদের খবরের ভিত্তিতেই পূর্ব কলকাতার এন্টালির নির্মীয়মান বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছিল ২২টি তাজা বোমা। বাড়ির মধ্যে এই তাজা বোমাগুলি ফেটে গেলে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারত বলেই ধারণা পুলিশের। বাড়ির চার মালিক ও প্রোমোটারকে জেরা করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ওইদিন দুপুরে সেনা গোয়েন্দাদের দুই আধিকারিক এন্টালি থানায় গিয়ে পুলিশকে বোমার ব্যাপারে তথ্য দেন।

সেই অনুযায়ী পুলিশ এন্টালির স্যর সৈয়দ আহমেদ রোডে একটি নির্মীয়মান বাড়িতে হানা দেয়। গোয়েন্দাদের সঙ্গে নিয়েই বাড়িটির একতলার কোণের দিকের একটি ঘর খুলে তল্লাশি চালান পুলিশ আধিকারিকরা। দেওয়াল লাগোয়া একটি কুঠুরির ভিতর থেকে দুটি বাক্স বের করা হয়।

তার ভিতর থেকে উদ্ধার হয় মোট ২২টি তাজা বোমা। কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) গোয়েন্দা বিভাগের বম্ব ডিসপোসাল স্কোয়াড গিয়ে বোমাগুলি নিষ্ক্রিয় করে। এর কয়েকদিনের মধ্যে ফের বোমা উদ্ধারের ঘটনা ঘটল। ভোটের আগে এ ধরনের ঘটনায় নজরদারি ও নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হচ্ছে।