চোখ ভালো রাখতে চান? তাহলে আজই করুন এই কাজটি

চোখ ভালো রাখতে চান? তাহলে আজই করুন এই কাজটি

আজ বাংলা: বর্তমানে আমাদের বেশিরভাগ সময় ল্যাপটপ, কম্পিউটার বা ফোন নিয়েই কাটে।  করোনার কারণে বিগত কয়েক মাস ধরে সবাই ওয়ার্ক ফ্রম হোমে অভ্যস্ত। 


আর সেই সঙ্গে দেখা দিচ্ছে আরও নানা সমস্যাও। আমাদের অজান্তেই বেড়ে গিয়েছে স্ক্রিন-টাইমিং। সারাদিনই বাড়িতে থাকার ফলে ল্যাপটপ, মেবাইল আর টিভিতেই কাটছে বেশির ভাগ সময়। এছাড়াও শপিং থেকে অফিসের কাজ ভরসা সেই ল্যাপটপ।


 যার ফলে প্রভাব পড়ছে চোখে। সারাদিনের এই অতিরিক্ত চাপে ক্লান্ত হয়ে পড়ছে চোখ। এদিকে চাইলেই যে চিকিৎসকের কাছে যেতে পারবেন এমন নিশ্চয়তাও নেই। অতএব যত্ন আপনাকে নিজেকেই নিতে হবে। যেমন কাজের ফাঁকে ল্যাপটপ থেকে একটু বিরতি নিন। চোখ সরিয়ে রাখুন। 


এই চোখকে বাঁচাতে হলে কয়েকটি উপায় জেনে রাখা ভালো।  দুধ আর মধু পুষ্টিতে একেবারে ভরপুর। ক্যালসিয়ামের সবচেয়ে ভালো উৎস হল দুধ। ক্যালসিয়াম আমাদের দাঁত ও হাড়ের গঠনে সাহায্য করে। 


এছাড়াও দাঁতের ক্ষয়রোধ করে। ছোট থেকেই যে জোর করে দুধ খাওয়ানোর অভ্যেস করানো হয় তার কিন্তু উপকারিতা অনেক। দাঁতের ক্ষয়রোধের সঙ্গে সঙ্গে দৃষ্টিশক্তি ভালো করতেও দুধ অনেক সাহায্য করে। সারাদিনের কর্মব্যস্ততার পর ক্লান্তি দূর করতে এক গ্লাস গরম দুধ খুবই উপকারী। গরম দুধ ক্লান্ত পেশি সতেজ করতে সাহায্য করে।


প্রতিদিন যদি কোনও একটা সময় গরম দুধে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন তাহলে তার অনেক উপকার পাবেন। আর্য়ুবেদ শাস্ত্রেও বলা রয়েছে দুধে মধু মিশিয়ে খাবার কথা। মধুর মধ্যে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিফাংগাল যা যে কোনও রকম ইনফেকশন থেকে রক্ষা করে। 


এছাড়াও দুধে আছে ভিটামিন ডি, এ। আছে ল্যাকটিক অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম। ফলে যখন এই দুই উপাদান মিশে যাচ্ছে তখন তা যেমন দৃষ্টিশক্তি ভালো করে তেমনই চোখের পেশির কার্যক্ষমতা বাড়ায়। তাই আর দেরি নয়, আজই করুন এই কাজগুলি।