ভাইফোঁটা...শেষ মুহূর্তে এই মিষ্টিগুলি দিয়ে সাজিয়ে তুলুন পাত

ভাইফোঁটা...শেষ মুহূর্তে এই মিষ্টিগুলি দিয়ে সাজিয়ে তুলুন পাত

আজ বাংলা: আজ ভাইফোঁটা। সারা বছর ঝগড়া, খুনসুটিতে মেতে থাকার পর আজকের এই বিশেষ দিনটিতে শান্ত থাকতে বাধ্য হয়ে যায়। এদিকে ভাইফোঁটা মানেই ভাইয়ের পাতে সাজিয়ে দেওয়া হরেক পদের মিষ্টি৷ 

কেউ পাঁচ রকম, কেউ বা আবার সাত রকম মিষ্টিতে সাজিয়ে দেন আদরের ভাইয়ের প্লেট৷ সময়ের সঙ্গে মিষ্টির ধরন বদলালেও থেকে গিয়েছে কিছু সাবেকিয়ানা৷ আধুনিক আর সাবেক মিষ্টির সেই মিশেলেই সাজিয়ে তুলুন আপনার ভাইয়ের মিষ্টির পাত৷

হ্যাঁ ভাইফোঁটার সবচেয়ে সাবেক সন্দেশ ভাইফোঁটা লেখা গোল ক্ষীরের মিষ্টি৷ সাম্প্রতিক সময়ে হারিয়ে যায়নি এই মিষ্টির জনপ্রিয়তা৷ সাবেক ছোঁয়া রাখতে দিতে পারেন আপনিও৷

এছাড়া ভাইফোঁটা লেখা মিষ্টির মতোই ভাইয়ের পাতা খাজা দেওয়াও বহু পুরনো রেওয়াজ৷ আপনিও দিয়েছেন নিশ্চয়ই ছোটবেলায়৷ সেই নস্টালজিয়া ফিরিয়ে আনতে এবারও পাতে আপনি খাজা দিতে পারেন৷

সব সন্দেশ দেবেন না৷ এতে গলা শুকিয়ে যাবে৷ চমচম, পান্তুয়ার মতো কোনও একটা রসের মিষ্টি অবশ্যই রাখুন৷ তবে রসের মিষ্টি বেশি খেলে মুখ মেরে যায়৷ তাই এক রকম রসের মিষ্টিই রাখবেন৷

ভাইফোঁটা মিষ্টি কড়াপাকের সন্দেশ, তাই দ্বিতীয় সন্দেশটা রাখুন একটু নরম পাকের৷ ছানার বা নতুন গুড়ের সন্দেশ রাখলেই জমে যাবে৷

এছাড়া পঞ্চম মিষ্টিটা হতে পারে যেমন খুশি৷ যদি সাবেকিয়ানা রাখতে চান তাহলে দিন গাঙ্গুরামের ইন্দ্রানী বা নকুড়ের জলভরা তালশাঁস বা ভীমনাগের মতো কোনও রাসভারী মিষ্টি৷