দেশের বড় অংশে ছড়িয়ে পড়ছে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, ১২০০ পাখির মৃত্যু ২৪ ঘণ্টায়

দেশের বড় অংশে ছড়িয়ে পড়ছে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, ১২০০ পাখির মৃত্যু ২৪ ঘণ্টায়

ক্রমে দেশের বড় অংশে ছড়িয়ে পড়ছে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক। শনিবারই দেশ জুড়ে ১ হাজার ২০০ পাখির মৃত্যুর খবর এসেছে। নতুন করে আক্রান্ত রাজ্যগুলির তালিকায় যুক্ত হয়েছে উত্তর প্রদেশ। ফলে দেশে সরকারি ভাবে মোট বার্ড ফ্লু আক্রান্ত রাজ্যের সংখ্যা পৌঁছে গিয়েছে সাত-এ।

 বাংলার কাছে ছত্তীসগঢ়েও একাধিক পাখি-মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। তবে তা বার্ড ফ্লু-এই কি না, তা নিশ্চিত হতে নমুনাগুলি পরীক্ষায় পাঠানো হয়েছে। শনিবার নতুন করে মহারাষ্ট্রের একটি পোল্ট্রিতে ৯০০ মুরগির মৃত্যুর খবর মেলে। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে দিল্লি, ছত্তীসগঢ় ও মহারাষ্ট্রে পাখির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও সেগুলি বার্ড ফ্লু থেকে কি না, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। তার ফল পাওয়া গেলে পুরো বিষয়টি বোঝা যাবে।  আক্রান্ত রাজ্যের তালিকায় নতুন যুক্ত হওয়া উত্তর প্রদেশ ছাড়াও রয়েছে কেরল, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা ও গুজরাত। শনিবারই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জ্যান্ত পাখি রাজধানীতে আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

বন্ধ করা হয়েছে গাজিপুরের পোল্ট্রি মার্কেট। আপাতত ১০ দিন সেই বাজার বন্ধ থাকবে। অরবিন্দ কেজরীবাল জানিয়েছেন, দিল্লিতে এখনও বার্ড ফ্লু-এর কোনও নিশ্চিত খবর মেলেনি। তবে আগে থেকে নিরাপদ থাকতে সবরকম ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রশাসন।

প্রায় একই রকতম পদক্ষেপ করেছে অসম সরকারও। রাজ্যের বিভিন্ন অংশে হাঁস-মুরগি ঢোকা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।  কেন্দ্রীয় পশুপালন ও দুগ্ধজাত পণ্যের মন্ত্রকের পক্ষ থেকে সব রাজ্যের মুখ্যসচিব ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রধান শাসকদের চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, পরিস্থিতির উপর তাঁরা যেন নজর রাখেন।

পশু থেকে মানুষের শরীরে যাতে রোগ না ছড়ায়, সে দিকে খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে। তৈরি রাখতে বলা হয়েছে যথেষ্ট পিপিই কিট। কিন্তু কোনওভাবেই বিষয়টি নিয়ে যাতে গুজব না ছড়ায় সে দিকে খেয়াল রাখতে জোর দেওয়া হয়েছে।