ঝুলন পূর্ণিমার দিন বাড়িতে কিনে আনুন বীণা , এছাড়াও করুন এই কাজগুলি   

ঝুলন পূর্ণিমার দিন বাড়িতে কিনে আনুন বীণা , এছাড়াও করুন এই কাজগুলি   

বৈষ্ণবদের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব হল ঝুলন পূর্ণিমা। অমাবস্যায় পরের একাদশী থেকে আরম্ভ করে শ্রাবনী পূর্ণিমা পর্যন্ত চলে এই উৎসব। দোলনা সাজানো, ভক্তিমূলক গান, নাচ, সব মিলিয়ে রাধাকৃষ্ণের প্রেমলীলার এটি একটি বিশেষ উৎসব।বৃন্দাবন, মথুরা আর ইসকন , এ রাজ্যের নবদ্বীপে মহা সমারোহে পালিত হয় এই ঝুলন। এবছর ১৮ অগস্ট আগামীকাল বুধবার ঝুলনযাত্রা শুরু ও ২১ অগস্ট শনিবার ঝুলন যাত্রা শেষ। ঝুলন পূর্ণিমার দিন সকাল বেলায় উঠে সেরে ফেলুন এই কাজ গুলি , দেখুন মনোবাঞ্ছাও পূর্ণ হবে।

 

জেনে নিন কাজগুলি :

 

এদিন ঝুলন সাজানোর পাশাপাশি এই দিন রাধা-কৃষ্ণের পুজো করুন । সংসার ভরে উঠবে শান্তি আর সমৃদ্ধিতে । ঝুলনযাত্রার দিনগুলিতে গীতাপাঠ করা অত্যন্ত শুভ।

 ঝুলন পূর্ণিমার দিন প্রথমে গণেশের পুজো করবেন, তার পর রাধাকৃষ্ণের পুজো করবেন। হলুদ রঙের ফুল ও ফল তাঁদের খুব পছন্দের ।

 

ঝুলনযাত্রার দিন ভোরে গঙ্গাস্নান করা অত্যন্ত পূণ্যের কাজ। এই দিন শ্রীকৃষ্ণের মন্দিরে মুকুট দান করুন।এই দিন বাড়িতে ময়ূরের পালক কিনে এনে ঠাকুরের আসনে রাখা খুবই ভাল কাজ।ঝুলনযাত্রার দিনগুলিতে গীতাপাঠ করলে মন আনন্দে ভরে থাকে এবং নানা প্রকার দুঃখ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এই দিন ঠাকুরের আসনে একটা নতুন চন্দনকাঠ কিনে এনে রাখুন। এতে বাড়িতে শুভ শক্তি প্রবেশ করে।জল অত্যন্ত পবিত্র জিনিস। ঝুলনযাত্রার দিন তৃষ্ণার্তকে জল পান করালে পূণ্য লাভ করা যায়।এই দিন বাড়িতে বীণা কিনে আনা অত্যন্ত শুভ বলে মানা হয়।