নিজের ফ্ল্যাটে গুলিবিদ্ধ পুতিনের পরমাণু ব্রিফকেস বহনকারী

নিজের ফ্ল্যাটে গুলিবিদ্ধ পুতিনের পরমাণু ব্রিফকেস বহনকারী

নিজের ফ্ল্যাটে গুলিবিদ্ধ হলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পরমাণু ব্রিফকেস বহনকারী তথা কেজিবি-র প্রাক্তন গুপ্তচর কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) ভাদিম জিমিনের। সোমবার তাঁকে মস্কোর কাছে ওই ফ্ল্যাটে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। জিমিনকে স্থানীয় হাসপাতালের আইসিইউ-তে ভর্তি করানো হয়েছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর।

এই ঘটনার পিছনে কে বা কারা জড়িত, তা জানা যায়নি।  মস্কোর সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ঘটনার সময় ক্রাসনোগোর্কের ওই ফ্ল্যাটে ৫৩ বছরের জিমিনের স্ত্রী ছিলেন না। স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ওই মহিলা এই মুহূর্তে ইউক্রেনে রুশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে রয়েছেন। ফ্ল্যাটের বাথরুমে ছিলেন জিমিনের ভাই। তিনিই রক্তাক্ত অবস্থায় জিমিনকে পড়ে থাকতে দেখেন।

তাঁর মাথায় বুলেটের ক্ষতচিহ্ন ছিল। জিমিনের পাশেই পড়েছিল একটি রাবার বুলেট ছোড়ার পিস্তল।  কী কারণে রাশিয়ার ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিসের প্রাক্তন কর্মী জিমিনকে গুলি করা হল, তা স্পষ্ট নয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এই ঘটনা আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও শিরোনামে উঠে এসেছে। পুতিনের পরমাণু অস্ত্রসম্ভারের নিয়ন্ত্রণ যে ব্রিফকেস রয়েছে, সেটি সর্ব ক্ষণ বহন করাই নাকি জিমিনের দায়িত্ব ছিল।

ওই ব্রিফকেসটি নিয়ে প্রায় সর্ব ক্ষণই পুতিনের পাশে থাকতে দেখা যেত তাঁকে। যদিও তাঁর এই দায়িত্ব স্পষ্ট ভাবে উল্লেখিত নয় বলেও দাবি। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের আরও দাবি, সম্প্রতি শুল্ক বিভাগে যোগ দেওয়ার পর জিমিনের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তিনি গৃহবন্দিও ছিলেন বলে দাবি। এই ঘটনার সঙ্গে তার কোনও যোগসূত্র রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর।