কেন্দ্রীয় সরকারের আওতায় আসতে চলেছে একাধিক পেনশনের জন্য নতুন নতুন স্কিম

কেন্দ্রীয় সরকারের আওতায় আসতে চলেছে একাধিক পেনশনের জন্য নতুন নতুন স্কিম

আজবাংলা   প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শ্রমযোগী মানধন যোজনা ও লঘু ব্যাপারী মানধন যোজনাকে (পিএমএসওয়াইএম) সামাজিক সুরক্ষার কোডের মধ্যে নিয়ে আসার চেষ্টা করছে। এরই পাশাপাশি, একাধিক পেনশনের কর্মসূচিকেও কেন্দ্রের সোশ্যাল সিকিউরিটি কোডের মধ্যে নিয়ে আসতে চলেছে। শ্রমমন্ত্রক সূত্রে মারফৎ জানা গিয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার দেশের মধ্যে ৪৪টি শ্রম আইনকে এক করে চারটি লেবার কোডে পরিণত করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে। এরই মধ্যে, সংসদে পাশ হয়ে গিয়েছে একটি কোড বিল। এখন সংসদের মধ্যে আসন্ন অধিবেশনে বাকি তিনটি কোড বিলও পাশ করানো হতে পারে, সূত্র মারফৎ খবর। জানা গিয়েছে, যোগ করা হবে সরকারের অন্যান্য পেনশন প্রদানকারী কর্মসূচিকেও। 

এই শ্রমযোগী মানধন যোজনা (পিএমএসওয়াইএম) নাম লেখাতে পারেন শুধুমাত্র ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যে অসংগঠিত শ্রমিক ও কর্মচারীরা। এরমধ্যে যাদের কেবল প্রত্যেক মাসে রোজগার ১৫ হাজার টাকার বেশি নয়। এই নতুন যোজনার কর্মসূচিতে নাম লেখালে ৬০ বছর বয়সের পর থেকে শ্রমিক ও কর্মচারীরা প্রত্যেক মাসে মাসে তিন হাজার টাকার নিশ্চিত পেনশন পাবেন। কেন্দ্র সুত্রে খবর। আবার অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় সরকার দেশের সমস্ত ছোট ছোট ব্যবসায়ীদের সামাজিক সুরক্ষা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী লঘু ব্যাপারী মানধন যোজনা চালু করেছে। এদের জন্য সেই একই ১৮ থেকে ৪০ বছর পর্যন্ত বয়সসীমা প্রয়োজন। এই নতুন স্কিমে নাম লেখাতে পারেন ছোট ব্যবসায়ীরা। এদের ক্ষেত্রও মিলবে ৬০ বছর বয়সের পর দৈনিক মাসে তিন হাজার টাকার পেনশন।

সেইক্ষেত্রে, ওই আওতাভুক্ত ব্যবসায়ীদের বার্ষিক রোজগার কখনই দেড় কোটি টাকার বেশি হলে চলবে না। এর পাশাপাশি সেইসকল ব্যবসায়ীরা ইপিএফ,এনপিএস ও ইএসআইসি শ্রমযোগী মানধনে অংশ নিতে পারবেন না। সরকারি সূত্র অনুযায়ী খবর, কেন্দ্রীয় সরকার নতুন করে চিন্তা করছে যে, নতুন স্কিমের সঙ্গেই অটল পেনশন যোজনা এবং প্রধানমন্ত্রী জীবনজ্যোতি বিমা যোজনা কর্মসূচিও শ্রমমন্ত্রকের লেবার কোডের মধ্যে কোনভাবে নিয়ে আসা সম্ভব হয় কি না।