Weather Update | রাজ্যে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেনে নিন ভিজবে কোন কোন জেলা?

Weather Update |  রাজ্যে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা,  জেনে নিন ভিজবে কোন কোন জেলা?

চলতি বছর সময়ের আগেই বর্ষা প্রবেশ করেছিল উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। কিন্তু, দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করতে অপেক্ষাকৃত বেশি সময় লেগেছে। একইসঙ্গে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা চলতি বছর অনেক দুর্বল বলেই জানিয়েছিলেন আবহাওয়াবিদরা (Weather Update)। আগামী কয়েক দিনের পূর্বাভাস বলছে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি আরও বাড়লেও ছিটেফোঁটা বৃষ্টিতেই কার্যত সন্তুষ্ট থাকতে হবে দক্ষিণবঙ্গের বাসিন্দাদের।  

গত কয়েকদিন ধরেই উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাত চলছে। আগামী কয়েকদিনে পরিস্থিতি আরও বদলাতে চলেছে। বাড়বে বৃষ্টিপাত। দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার এবং জলপাইগুড়ি জেলায় শুক্রবারও রয়েছে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি জেলার কিছু অংশে এদিন ভারী বৃষ্টি হতে পারে। শনিবার থেকে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরও বাড়বে। ২৭ তারিখ পর্যন্ত উত্তরবঙ্গে টানা বৃষ্টিপাত হবে, জানা যাচ্ছে এমনটাই।

 দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আবহাওয়ার বিশেষ পরিবর্তন হবে না। বিকেলের দিকে প্রায় সমস্ত জেলাগুলিতেই বজ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ভারী বৃষ্টিপাত হবে না, এমনটাই জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা। অর্থাৎ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাত অপেক্ষাকৃত কম হবে।  আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতার আবহাওয়ার বিশেষ বদলানোর সম্ভাবনা নেই, জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। মূলত তিলোত্তমার আকাশ থাকবে মেঘাচ্ছন্ন। বিক্ষিপ্তভাবে ছিটেফোঁটা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।  

শুক্রবার শহর কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের এবং এদিন সকালে শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি।  

শুক্রবার থেকে মহারাষ্ট্রে, বিশেষ করে মুম্বইয়ে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে কঙ্কন এবং গোয়াতে। পশ্চিম ভারত এবং মধ্য ভারতের রাজ্যগুলিতে আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রা দুই থেকে চার ডিগ্রি বাড়বে। তারপর ফের ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টি হবে অসম, মেঘালয়, মনিপুর, মিজোরাম সহ উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে। ফলে অবনতি হতে পারে অসমের বন্যা পরিস্থিতির। বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কেরল, কর্ণাটক, তামিলনাডু, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানার কিছু অংশে।