রাজ্য জুড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

রাজ্য জুড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপটে পৌষের শেষেও মুখ ঢেকেছে শীত। ঝঞ্ঝার সঙ্গে অকালবৃষ্টি এমন সঙ্গত করছে যে, মকরসংক্রান্তিতেও হাড়কাঁপানো শীতের সম্ভাবনা ক্ষীণ। তবে কিছুটা আশা জোগাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস। তাদের আশ্বাস, সপ্তাহান্তে কিছুটা হলেও ঘুরে দাঁড়াবে শীত। মেঘ-বৃষ্টি বিদায় নিলেই রাজ্য জুড়ে ফের নামবে পারদ।

শেষ পৌষে না হোক, মাঘের শুরুতেও যদি ফের শীতের আমেজ মেলে, সেই আশাতেই দিন গুনছেন অনেক বঙ্গবাসী। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাজ্যের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি হবে। বৃহস্পতিবার সকালে দার্জিলিং এবং জলপাইগুড়ির জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ মাঝারি বৃষ্টির কথা জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

কলকাতাতেও আকাশ থাকবে মেঘাচ্ছন্ন। সেই সঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে মহানগরীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রয়েছে ১৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা হতে পারে ২১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি বেশি। তবে শনিবার থেকে রাজ্যের বেশির ভাগ জেলায় আবার মিলবে শুকনো আবহাওয়া।

হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, উত্তরবঙ্গে শুক্রবারেই পারদের পতন শুরু হবে। গাঙ্গেয় বঙ্গে রাতের তাপমাত্রা নামতে শুরু করবে শনিবার থেকে।  উত্তর-পশ্চিম ভারত থেকে বয়ে আসা একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা (ভূমধ্যসাগরীয় এলাকা থেকে বয়ে আসা ঠান্ডা এবং ভারী বায়ু)-র জেরে বঙ্গে মুখ থুবড়ে পড়েছে শীত। উত্তুরে হাওয়া কার্যত গা-ঢাকা দিয়েছে। রোদের বদলে আকাশ মেঘলা হয়ে রয়েছে এবং এই সব কিছুর দৌলতেই তরতরিয়ে বেড়েছে রাতের তাপমাত্রা। বৃষ্টি হওয়ায় স্যাঁতস্যাঁতে ঠান্ডা রয়েছে বটে, কিন্তু চরিত্রগত ভাবে তার থেকে বঙ্গের চেনা শীতের দূরত্ব কয়েক যোজন।