করোনার আবহে ঘরে বসেই আবেদন করতে পারেন নতুন রেশন কার্ড

করোনার আবহে ঘরে বসেই আবেদন করতে পারেন নতুন রেশন কার্ড

আজবাংলা   গোটা দেশজুড়ে জারি হয়েছে এক নতুন নিয়ম। ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ এই নিয়মটি প্রাধান্য পাওয়ার পর থেকেই রেশন কার্ডের গুরুত্ব আরও বেড়েছে। ভারত সরকারের এই নতুন যোজনায়  দেশের যে কোনও জায়গা থেকে একেবারে সস্তায় রেশন পাওয়া যাবে। তার জন্য এই করোনার জেরে কোথাও ছোটাছুটিও করতে হবে না। তবে এরজন্য প্রয়োজন নেই কোন নতুন কার্ড। তবে দেশের মানুষের হাতে এখনও নানান কারনের জন্যই রেশনকার্ড নেই। কিনটু এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির জেরে নতুন করে রেশন কার্ড বানাতেও নারাজ অনেকেই। তাদের জন্যও ভারত সরকারের তরফ থেকে আনা হয়েছে এক স্মার্ট মুভ।

অর্থাৎ, ঘরে বসেই স্মার্ট ফোনের দ্বারা আপনি / আপনারা রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনি / আপনারা যে রাজ্যেরই বাসিন্দা হোন না কেন, সেই রাজ্যের মধ্যে থেকেই শুধু ওয়েবসাইটে ঢুকে রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন। সব রাজ্যের মানুষের সুবিধার কথা ভেবে এই উদ্দেশ্যেটি গ্রহন করা হয়েছে। তবে আপনার নিজের রাজ্যের ওয়েবসাইট জেনে নিয়ে তারপর আবেদন করতে হবে। তবে এখনও কিছু রাজ্য এই ওয়েবসাইট তৈরি করতে উঠতে পারেনি। বাংলার মানুষের জন্য https://wbpds.gov.in/ এই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে অ্যাপ্লিকেশন করতে হবে। 

এই রেশন কার্ড গ্রহনের জন্য কিভাবে আবেদন করতে হবে, বিস্তারিত নিয়মাবলী নিচে বলা হল।

১} প্রথমে আবেদনকারীকে নিজের রাজ্যের সরকারি ওয়েবসাইটে লগ ইন করতে হবে। ২} এরপর অ্যাপ্লাই অনলাইন ফর রেশন কার্ড এর লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে। ৩} এরপর রেশন কার্ড তৈরির জন্য আপনার আইডি প্রুফ হিসেবে ভোটার আইডি, আধার কার্ড, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি আইডি প্রুফ হিসেবে দেওয়া যেতে পারে। ৪} কার্ড তৈরির জন্য ৫ থেকে ৪৫ টাকার মধ্যে মূল্য দিতে হবে৷ ৫} এরপর আবেদনপত্রে ফ্রম ফিল আপ, ন্যায্য মূল্য ও অ্যাপ্লিকেশন জমা দেওয়া হয়ে গেলে এরপর ফিল্ড ভেরিফিকেশন হবে। ৬} সবশেষে আপানার আবেদন করা যথাযত হলে রেশন কার্ড তৈরি হয়ে যাবে।