বুদ্ধদেবের ছবি নেটমাধ্যমে দিতেই কোপ নুসরতকে, বুদ্ধকে সাক্ষী রেখে যশকে বিয়ে করুন

বুদ্ধদেবের ছবি নেটমাধ্যমে দিতেই কোপ নুসরতকে, বুদ্ধকে সাক্ষী রেখে যশকে বিয়ে করুন

নুসরত জাহানের ইনস্টাগ্রাম বলছে, তিনি শান্তি খুঁজছেন। শরণ নিয়েছেন গৌতম বুদ্ধের! সেটাই যেন কাল হয়েছে! কেন? বুদ্ধদেবের ছবি আর বাণী নেটমাধ্যমে দিতেই তাঁর দিকে ধেয়ে এসেছে নেটাগরিকদের কটাক্ষ, এ বার বুদ্ধদেবকে সাক্ষী রেখে যশ দাশগুপ্তকে বিয়ে করুন! সোমবার রাতে নেটমাধ্যমে নুসরত একটি ছবি দেন।

আলো-আঁধারি পরিবেশে বুদ্ধদেবের মূর্তি। বরাভয় মুদ্রায় বসে তিনি। ছবির সঙ্গে বুদ্ধদেবের একটি বাণীও ভাগ করে নিয়েছেন তিনি। বুদ্ধের ভাষায়, ‘হাজার যুদ্ধে জয় লাভের চেয়ে নিজের কাছে জয় লাভ-ই আসল। এই জয় কেউ কেড়ে নিতে পারে না। না শয়তান, না ভগবান!' নিজের লক্ষ্যে অবিচল নুসরত কি ঘুরিয়ে নিজের অবস্থানের কথাই আরও এক বার জানালেন?

নাকি, নিজেকে দৃঢ় রাখতে নুসরত তথাগতের বাণী আঁকড়ে ধরেছেন? জানা নেই। তবে বুদ্ধদেবের ছবি এবং বাণী দিতেই যেন দ্বিগুণ ক্ষেপে উঠেছেন নেটাগরিকেরা। কেউ বলেছেন, মানুষের অনুভূতি নিয়ে খেলছেন অভিনেত্রী। কারওর প্রশ্ন, এটা কি যশ দাশগুপ্তের বাড়ি? কিছু জনের ভর্ৎসনা, এ ভাবে কেন নিজেকে এত সস্তা বানাচ্ছেন অভিনেত্রী! কারওর ব্যঙ্গোক্তি, নুসরতের মতো দ্বিচারিণীর জন্য নিখিল নন, যশই উপযুক্ত।

পাশাপাশি, কিছু নেটাগরিক নিখিলের চরিত্র নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। কোনও মন্তব্যই যে নুসরত গায়ে মাখছেন না সে কথাও স্পষ্ট তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে। সেখানে নিজের ছবি দিয়ে সাংসদ-তারকা সাফ জানিয়েছেন, ‘আমি নিজেতেই নিজে মত্ত!'  

View this post on Instagram

A post shared by Nusrat (@nusratchirps)