শিশুদের টিকাকরণে কোভ্যাক্সিনকে সবুজ সঙ্কেত দিল ডিসিজিআই

শিশুদের টিকাকরণে কোভ্যাক্সিনকে সবুজ সঙ্কেত দিল ডিসিজিআই

করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আতঙ্কের মাঝএ শুখবর। এবার শিশুরাও করোনা টিকা পাবে ভারতে। ভারত বায়োটেকের তৈরি করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনকে শিশুদের উপর জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগের অনুমতি দিল সিলেক্ট এক্সপার্ট কমিটি। এর ফলে এবার দেশের ২ থেকে ১৮ বছর বয়সীরাও করোনা টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্য। কেন্দ্রের অধীনস্থ সংস্থা ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই)-র একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি জানিয়েছে, দুই থেকে ১৮ বছর বয়সিদের কোভ্যাক্সিনের টিকা দেওয়া যাবে।

সেপ্টেম্বরে কোভ্যাক্সিনের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা পর্ব শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে এই টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক। চলতি মাসের গোড়ায় সে সংক্রান্ত ফলাফল ডিসিজিআই-এর কাছে জমা দিয়েছেন তারা। যাবতীয় ফলাফল পর্যালোচনার পর মঙ্গলবার তাতে ছাড়পত্র দিল ডিসিজিআই। কেন্দ্রের ছাড়পত্র মিললেও জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য কোভ্যাক্সিনকে এখনও অনুমোদন দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)।

যদিও ভারত বায়োটেক কর্তৃপক্ষের দাবি, কোভ্যাক্সিনের পরীক্ষা পর্বের যাবতীয় তথ্যই এবং ফলাফল গত ৯ জুলাই হু-র কাছে পাঠানো হয়েছে। শিশুদের জন্য এই টিকা উপযুক্ত কি না, তা পর্যালোচনা করতে হু-র অন্তত সপ্তাহ ছয়েক সময় লাগে বলে সূত্রের খবর। তবে জুলাইয়ের শেষেই সেই পর্যালোচনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে হু। সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর তরফে জানানো হয়েছে যে খুব শীঘ্রই শিশুদের জন্য কোভ্যাক্সিনের ছাড়পত্র দেওয়ার খবর আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার।

এদিকে কোভ্যাক্সিনের পাশাপাশি বেশ কিছুদিন আগেই ছোটদের জন্য টিকা প্রয়োগের জন্য অনুমোদন চেয়ে আবেদন করে জাইকোভ-ডি। তবে জাইকোভ ডি টিকার অনুমোদন সংক্রান্ত চূ়ডান্ত সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি। তবে শিশুদের জন্য কোভ্যাক্সিনের অনুমোদন পাওয়ার খবর নিস্বন্দেহে স্বস্তি দেবে দেশবাসীকে। উত্সবের মরশুমে কোভিড ছড়ানোর আশঙ্কার মাঝে শিশুদের টিকাকরণ শুরু হলে কোভিডের পরবর্তী ঢেউ মোকাবিলা করা যাবে মনে মত বিশেষজ্ঞদের।