দাদাগিরি ছেড়ে চলে যাচ্ছেন দাদা, কিন্তু কেন? মনখারাপ সবার

দাদাগিরি ছেড়ে চলে যাচ্ছেন দাদা, কিন্তু কেন? মনখারাপ সবার

আজবাংলা   জি বাংলার জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘দাদাগিরি সিজন ৮’ শেষ হতে চলল আজ। সামনে বছর আবার আসবে নতুনদের নিয়ে, সাথে থাকবে নতুন চমক। গ্র্যান্ড ফিনালের পর্বে থাকছে একেবারে নতুন আকর্ষণ। গ্র্যান্ড ফিনালের সেরা পাঁচ জেলার প্রতিযোগীদের সাথে থাকবেন টলি পাড়ার সেলেবরা।

এই সেলেবরা দর্শকদের মনোরঞ্জন করার পাশাপাশি ওই পাঁচ প্রতিযোগীদের জিততে সাহায্য করবেন। সেলেবদের মধ্যে বিশ্বনাথ বসু, সোনালী চৌধুরী, মনামী ঘোষ ও কাঞ্চন মল্লিক। এর পাশাপাশি গানের আসরে থাকবেন চন্দ্রবিন্দু, সোমলতা আচার্য, রূপঙ্কর বাগচী, মনোময় ভট্টাচার্য, ইমন চক্রবর্তী, ‘ব্যান্ডেজ’ ব্যান্ড এবং মীর।

দেখতে দেখতে আরও একটা সিজন শেষ হল। গ্র্যান্ড ফিনালের এত হইচইয়ের মাঝে আমাদের সকলের প্রিয় দাদা নিজের মন খারপ লুকিয়েছেন। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, তিনি শেষের দিনের জন্য প্রবলভাবে বিষণ্ণ। কিন্তু সেই বিষয় কাউকে বুঝতে দেননি। তাঁর শেষ দিনেও সেরা পারফরম্যান্সটা দিয়ে গেছেন এই শোয়ে। জানা গিয়েছে, সেটের সকলকে চিয়ার আপ করতেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক। সবার সঙ্গে মিলেমিশে হইচই করে কাজ করতেন সকলের প্রিয় মহারাজ।

সবথেকে বড় বিষয় ছোট থেকে বড় কাউকে বুঝতে দেননি তিনি প্রাক্তন অধিনায়ক বা বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। এই প্রসঙ্গে চ্যানেল কর্তৃপক্ষে জানিয়েছেন, সৌরভের সেন্স অফ হিউমার এককথায় অসাধারণ। পাঁচ মিনিট ওনার সঙ্গে থাকলেই সেটা বেশ টের পাওয়া যায়। এবারের চলতি সিজনের ট্যাগলাইন ছিল ‘দিন বদলের দাদাগিরি’।

আসলে, এমন অনেক অনেক মানুষ আছেন আমাদের দেশে, যারা নিজেদের অঞ্চলকে নিজেদের পরিশ্রমের বদলে অন্য রূপ দিয়ে থাকেন সমাজে। এর বদলে তাঁরা জীবন থেকে কিছুই পান না। সেইকারনে, তাঁদেরকে কুর্নিশ জানাতে এই শোয়ের ট্যাগলাইন এমন করা হয়েছিল। আর সবশেষে বলাই বাহুল্য, প্রতেকবারের মত এই বারের সিজনও বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে শুধুমাত্র দাদার দাদাগিরির জন্য।