ধনু রাশি

ধনু রাশি

রাশি চক্রের নবম রাশি ধনু। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বৃহস্পতি। এ রাশিকে ইংরেজিতে (Zodiac Sagittarius) বলা হয়ে থাকে। অত্যন্ত সৎ ধনু রাশিরা জাতকরা। আপনি যদি Dhanu Rashi ধনু রাশির সাথে থাকেন তবে সততা ছাড়া আর কিছুই আশা করবেন না। সনাতন ধারণার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও দর্শনের প্রতি ধনু রাশির আগ্রহ রয়েছে। আবেগ বা কল্পনা নয় বাস্তবতার নিরিখে সিদ্ধান্ত নিতে পছন্দ করে। ধনুরা নতুন কিছু অনায়াসে শিখতে পারে।

তারা ব্যক্তিত্বসম্পন্ন ও প্রকৃত জ্ঞানের অধিকারী। জীবনের অনেক ক্ষেত্রে অন্যরা ধনু জাতক-জাতিকার দর্শন, বুদ্ধি ও পরামর্শ অনুসরণ করে।  ধনু রাশির জন্য শুভ রং হলুদ, বেগুনি ও ক্রিম। এ রাশির শুভ সংখ্যা ৩। এ রাশির শুভ ধাতু রুপা ও প্লাটিনাম। শুভ দিন বৃহস্পতিবার। এ রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য শুভ সঙ্গী অথবা সঙ্গিনী মেষ, সিংহ ও ধনু।

ধনুরা সাধারণত অস্থির প্রকৃতির। ধনুরা সবসময়ই হূদয়কে উদ্দীপ্ত করতে পছন্দ করে। ধনু যখন সরাসরি তার লক্ষ্যে দৃষ্টি দেয়। ধনুর বন্ধুদেরকে বলছি, নিজের মেজাজ ঠাণ্ডা রাখুন। ধনু যারা তেমন একটা কথাবার্তা বলে না, তারা হয়তো মনে মনে এমন চমত্কার কোনো পরিকল্পনা করছে যেটা বিশ্বকে চমকে দিতে পারে। 

  এই রাশির ব্যক্তিদের মধ্যে কাজের প্রবণতা খুব বেশি থাকে। এরা সাধারণত ক্লান্তিহীনভাবে সকল কাজ করতে পারে। এই রাশির ব্যক্তিরা সাধারণত শারীরিক দিক থেকে সুস্থ স্বাভাবিক থাকে। অনেক সময় নিজের মনের মধ্যে আবেগ লুকিয়ে রাখার কারণে, মাঝে মধ্যে শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়।  পরিবারের সকলের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক বজায় থাকে।

ভাই বোনদের সঙ্গেও সদ্ভাব থাকে এই রাশির জাতক জাতিকাদের। অনেক সময় বোনের উপদেশে জীবনের সমস্যা পার করে যেতে পারবে, এই রাশির ব্যক্তিরা। তবে পরিবারের সঙ্গে সর্বদা কিছু না কিছু সমস্যা লেগেই থাকে এবং বড়দের সঙ্গে মতের অমিলও দেখা যায়। একবার কাউকে মন থেকে ভালোবাসলে, তাঁদেরকে মন থেকে দূরে সরাতে পারে না এই রাশির জাতক জাতিকারা।

তবে অনেক সময় দেখা যায়, এই রাশির জাতক জাতিকাদের একাধিকবার বিবাহ হতে পারে। কাছের সম্পর্ক ভালো হয় না এদের।  প্রতিবাদী কাজকর্ম এদের ভীষণ প্রিয়। সেই কারণে কর্মজীবনেও সেরকমই কাজ বেছে নেয় এই রাশির জাতক জাতিকারা। যেখানে তাঁরা প্রতিবাদের মাধ্যমে নিজের মনের অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে পারে। প্রচণ্ড পরিশ্রমীও হয় তাঁরা।

যে কোন ধরণের কাজে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে। তবে কর্মক্ষেত্রে সতর্ক থাকা প্রয়োজন, নাহলে ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। আবার ব্যবসা করলে, লাভের মুখ দেখার সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে এই রাশির ব্যক্তিদের কাজের প্রয়োজনে বাইরে যেতেও দেখা যায়।  কাজের চাপ থাকলেও, আয়ের পথ সুগম হবে। তবে এদের সম্পত্তির প্রতি কোন লোভ থাকে না।

অর্থ ভাগ্যও খুব একটা ভালো থাকে না এই রাশির জাতক জাতিকাদের। তবে লটারি কাটলে, ভাগ্য সহায় হতে পারে অনেক সময়। বেশি ব্যয় হলেও, সঞ্চয় করাটা সহজ হবে। তবে এই রাশির ব্যক্তিদের চাকরী অপেক্ষা ব্যবসা ভাগ্য খুবই ভালো। ব্যবসায় ভালো লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এই রাশির ব্যক্তিরা ধার্মিক, সৎ, পরোপকারী এবং আদর্শবাদী হয়। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন হওয়ায় অন্যের অধীনে কাজ করতে অসুবিধা ভোগ করে। এরা সধারণত কর্মকুশল, দেবদ্বিজে ভক্তিমান, দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, সত্যপ্রিয়, জ্ঞানি ও প্রতিভাশালী হয়।

এদের বন্ধু সংখ্যা একটু কম। জাতকের বদান্যতার জন্য আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি হয়। দৈবে অত্যধিক বিশ্বাসী হওয়ায় কর্মে ব্যাঘাত আসতে পারে। বিষয় সম্পত্তিতে আসক্তি কম। দৃঢ়তা ও স্পষ্টবাদিতার জন্য প্রায়ই মতান্তর ঘটে। প্রথম জীবনে নানা বাধা বিঘ্ন, মানসিক অস্থিরতা, অর্থাভাব ইত্যাদি প্রায়ই দেখা দেয়। প্রচণ্ড পরিশ্রমী হওয়ায় অবস্থা পাল্টে যায়। মেষ, মিথুন ও ধনুরাশির জাতক জাতিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব বা বিবাহ সুখের হয়। অর্থ ভাগ্য খুব ভাল নয়। কিন্তু মধ্য জীবনের পর থেকে আর্থিক অবস্থা ভাল হতে থাকে।