ওয়াইড বল কাণ্ডের জেরে ফের নতুন বিতর্কে ধোনি

ওয়াইড বল কাণ্ডের জেরে ফের নতুন বিতর্কে ধোনি

আজবাংলা   তাঁর দল ধীরে ধীরে ঠিক ছন্দে ফিরছে। এতে স্বভাবতই ধোনির উচ্ছ্বসিত প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। কিন্তু সবকিছু মাঝেও বিতর্কও তাঁর পিছু ছাড়ছে না। ফের মঙ্গলবার নতুন বিতর্কে জড়ালেন সিএসকের অধিনায়ক।

ঘটনার সূত্রপাত হয় একটি ওয়াইড বলকে কেন্দ্র করে। এই মুহূর্তে ধোনির বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ তিনি আম্পায়ার ফিল রেইফেলকে প্রভাবিত করেছেন। সেদিনের ম্যাচে অর্থাৎ চেন্নাই সুপার কিংস সঙ্গে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ম্যাচে আম্পায়ার ওয়াইড বল দিতে গিয়েও সিদ্ধান্ত বদল করেন।

এটি বদল করতে হয়েছে, ধোনির চোখরাঙানির কারনে। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় হুলস্থূল কাণ্ড বেঁধে গিয়েছে। এমন ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ক্রিকেতপ্রেমীরা। এমন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩৫টি টেস্ট খেলা আম্পায়ারকে প্রভাবিত করায় ধোনিকে নিয়ে অসন্তুষ্ট অনেকেই।

একটা ওয়াইড বল কিংবা নো বলের সিদ্ধান্তের জন্য গোটা ম্যাচের রং বদলে যেতে পারে। তাই বিতর্ক দূর করতে এবারও ওয়াইড এবং নো বলের জন্য রিভিউ সিস্টেম চালু হোক! চাইছেন ভারত অধিনায়ক তথা আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

এই প্রসঙ্গে বিরাট কোহলি জানিয়েছেন, "দিনের পর দিন আমরা দেখেছি যে এই ধরনের বিষয়গুলো কত বড় আকার নিতে পারে। একটা ম্যাচে ছোট্ট একটা ভুল হতেই পারে আম্পায়ারদের। কিন্তু পরে সেটা কিন্তু খুব বড় হয়ে দাঁড়ায়। কোনও দল যদি ১ রানে হেরে যায় বা দেখা গেল তারা প্রাপ্য একটা ওয়াইড পায়নি এবং রিভিউ করতে পারেনি।''

শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি বিরাট বলেছেন, ''এমনকী ওই টুর্নামেন্টে তাদের সব সম্ভাবনা শেষ। সেক্ষেত্রে বড় ধাক্কা খেতে পারে। আমি অধিনায়ক হিসেবে চাইব, যদি আমার কাছে তা মনে হয় ভুল সিদ্ধান্ত, তাহলে যেন ওয়াইড বল নিয়ে রিভিউয়ের ডিসিশন আমার থাকে। আবার কোমর উচ্চতায় নো-বল নিয়েও আমি রিভিউ নিতে চাইব। যদি সেটি মনে হয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত ভুল।"

তবে, এত কিছুর মাঝে যাকে ঘিরে এত বিতর্ক অর্থাৎ ধোনির কোনরকম বক্তব্য পাওয়া যায়নি।