দুর্গা মূর্তির মুখ কোন দিকে থাকা শুভ জানেন?

দুর্গা মূর্তির মুখ কোন দিকে থাকা শুভ জানেন?

প্রায় শুরু দুর্গাপুজো Durga Puja। অনেক জায়গাতে পুজো উদ্বোধন হয়ে গিয়েছে। শুরু হয়েছে ঠাকুর দেখার পালাও। তবে গত বছরের মতো এই বছরও আদালতের নির্দেশে করোনা সতর্কতা হিসেবে মণ্ডপে দর্শনার্থীদের ঢোকার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তবু পুজো রীতি-নীতি এবং প্রথায় তো কোনও বদল আসেনি। তাই জেনে নিন বাড়ির পুজো হোক বা বারোয়ারি পুজো, দেবী দুর্গাকে কোন দিকে স্থাপন করা শুভ।

Durga Puja দুর্গা পুজোর সমস্ত শুভ ফল পেতে দুর্গা মূর্তি কোন দিকে স্থাপন করবেন, তার স্পষ্ট নির্দেশ রয়েছে বাস্তুশাস্ত্রে। হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, সব দেবতার নিজস্ব দিক রয়েছে। সেই দেবতাকে সেদিকেই স্থাপন করা বিধিসম্মত। Durga Puja দেবী দুর্গাকে স্থাপন করুন দক্ষিণ দিকে। খেয়াল রাখবেন দেবীর আরাধনা করার সময় আমাদের মুখ থাকতে হবে দক্ষিণ বা পূর্ব দিকে।

কারণ এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে এই নিয়মটি মেনে দেবীর অরাধনা করলে নাকি আরও বেশি মাত্রায় উপকার পাওয়া যায়। বাস্তু শাস্ত্র অনুসারে বাড়ির যে কোনও জায়গায় দুর্গা মূর্তি স্থাপন করা যায় না। বরং এক্ষেত্রে একটি জিনিস খেয়াল রাখা একান্ত প্রয়োজন, তা হল বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে দুর্গার মূর্তি রাখার আদর্শ জায়গা হল হল দক্ষিণ-পূর্ব দিক, নয়তো দক্ষিণ দিক। আসলে এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে বাড়ি বা মণ্ডপের এই নির্দিষ্ট দিকে দেবীকে স্থাপন করলে পজিটিভ শক্তির বিকাশ ঘটে।

ফলে হারিয়ে যাওয়া মানসিক শান্তি ফিরে আসতে যেমন সময় লাগে না, তেমনি স্ট্রেস এবং মানসিক অবসাদের প্রকোপ কমে চোখের পলকে। পূর্ব দিকে মুখ করে দুর্গার আরাধনা করলে তা আমাদের বিবেক জাগ্রত করে। দক্ষিণ দিকে মুখ করে দেবীর পুজো করলে তা আমাদের মানসিক শান্তি প্রদান করে। মণ্ডপে যদি হালকা হলুদ, সবুজ ও গোলাপী রঙের আধিপত্য থাকে তা পজিটিভ বাতাবরণ তৈরি করে বলে বাস্তুশাস্ত্রে নির্দেশ রয়েছে।

দেবীকে প্রতিষ্ঠা করার পর বাড়ির দক্ষিণ-পূর্ব কোণে মাটির প্রদীপ জ্বালাতে হবে এবং সেই প্রদীপ যেন নয় দিন পর্যন্ত জ্বলতে থাকে সেদিকে নজর রাখতে হবে। এমনটা করলে দুর্গা জাগ্রত হয়ে ওঠেন বলে বিশ্বাস। ফলে দেবীর আশীর্বাদে কোনও ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কা আর থাকে। প্রসঙ্গত, বাড়ির দক্ষিণ-পূর্ব কোণকে বাস্তুশাত্রে "বাস্তু জোন অব ফায়ার" বলা হয়ে থাকে। তাই এই স্থানে প্রদীপ জ্বালালে যে কোনও ধরনের বাস্তুদোষ কেটে যায়।