শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে আজ থেকে পান করুন মশালা টি

শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে আজ থেকে পান করুন মশালা টি

আজবাংলা  প্রত্যেক বাঙালির দিনটাই শুরু হয় চা দিয়ে। তাঁদের আড্ডায়, রাগে, প্রেমে, অভিমানে, ঝগড়ায় সবেতেই সঙ্গী হয়ে থাকে চা। সম্প্রতি উঠে এসেছে নতুন এক চা। এই চায়ের নাম ‘মশালা টি’। আমাদের সকলেরই রান্নাঘরে মজুত থাকে এমন কিছু মশলা দিয়ে তৈরি হয় এই বিশেষ চা। তবে এই বিশেষ মশালা টি পানে আপনার শরীর স্বাস্থ্য একেবারে চনমনে হয়ে উঠবে। বলা হয়ে গিয়ে থাকে, চায়ের গুণগত মান বজায় রাখতে দুধ এবং চিনি না মেশানোই ভালো। তবে যদি কেউ চাইলে তাহলে ১ কাপ ডাবল টোনড মিল্ক দিতে পারেন। সাথে চিনি মেশাতে পারেন নিজের স্বাদ মতো। আসুন দেখে নেওয়া যাক, এই বিশেষ চা টি তৈরি করতে কি কি উপকরন লাগবে।

উপকরণ- ৫ গ্রাম চায়ের পাতা, দুই কাপ মত জল, একটি তেজপাতা, চারটি লবঙ্গ, ছয়টি গোলমরিচ, একটি দারুচিনি, দুইটি এলাচ, এবং এক টুকরো আদা। পদ্ধতি- সমস্ত মশলা গুলোকে একজায়গায় এনে বেটে গুঁড়ো করে নিতে হবে। এরপর একটি পাত্রে জল নিয়ে চা এবং সমস্ত মশলা একসঙ্গে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর অপেক্ষা শুধু ছেঁকে নেওয়ার।

এই মশলা চায়ের গুণ

১} তেজপাতার মধ্যে ভালো পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। ২} লবঙ্গে রয়েছে ইউগেনল নামে এক উপাদান। এটি রক্তের মধ্যে সংক্রমণের ঝুঁকি কমায়। পাশাপাশি লবঙ্গ টনসিল থেকে কণ্ঠনালীর বিভিন্ন সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। ৩} গোলমরিচ পেটের সমস্যা কমিয়ে দেয়। এছাড়া গোলমরিচের অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি গুণ রয়েছে। তাই গোলমরিচ সংক্রমণ প্রতিরোধে সাহায্য করতে পারে। ৪} দারুচিনির মধ্যে পলিফেনল এবং প্রোঅ্যাথোসায়াডিন নামক উপাদান রয়েছে। এই উপাদানগুলি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৫} আদার মধ্যে আছে ম্যাগনেশিয়াম এবং জিঙ্ক। এই দুইটি ইমিউনিটি বাড়াতে সাহায্য করে। এছাড়া এই দুই খনিজ শরীরের রক্তপ্রবাহ সঠিক রাখে। পাশাপাশি আদার মধ্যে রয়েছে অ্যালালাইট সালফাইট নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টটি শরীরে সংক্রমণ প্রতিরোধ করে। ৬} চায়ে ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স, সি এবং বি৫ ভালো পরিমাণে রয়েছে। অপরদিকে খনিজের মধ্যে ম্যাঙ্গানিজ ও ফ্লুরিন চায়ে পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকে।