কলকাতায় উদ্ধার প্রায় সাড়ে ১৭ কোটি টাকার মাদক, গ্রেফতার মহিলা-সহ ৫

কলকাতায় উদ্ধার প্রায় সাড়ে ১৭ কোটি টাকার মাদক, গ্রেফতার মহিলা-সহ ৫

শহরে উদ্ধার প্রায় সাড়ে ১৭ কোটি টাকার মাদক। এই ঘটনায় এক মহিলা-সহ ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে ২ জন মুর্শিদাবাদ, ২ মণিপুর ও একজন অসমের বাসিন্দা। গোপন সূত্রে খবর, পেয়ে গতকাল কাশীপুর থানা এলাকায় অভিযান চালায় এসটিএফ। গ্রেফতার করে পাঁচ মাদক পাচারকারীকে। ধৃতদের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয় হেরোইন ও ইয়াবা ট্যাবলেট।

রবিবার সকাল ৬টা নাগাদ কাশিপুর থানা এলাকায় ধৃতদের গাড়ি তল্লাশি করে উদ্ধার হয় ৩কেজি হেরোইন ও দেড় লক্ষ টাকার ইয়াবা ট্যাবলেট। জানা গিয়েছে আন্তর্জাতিক স্তরে এই হেরোইনের বাজারমূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা। অন্যদিকে ইয়াবা ট্যাবলেটের মুল্য আনুমানিক ৭.৫০ কোটি টাকা। এসটিএফের এক কর্তা জানান, এই ইয়াবা ট্যাবলেট 'ক্রেজি ড্রাগস হিসেবেও পরিচিত।

ইয়াবা' নামে ওই ড্রাগের বাংলাদেশে প্রবল চাহিদা আছে বলে জানা যায়। এতে Mathamphetamine ও caffeine থাকে। এটিকে 'ম্যাডনেস ড্রাগও' বলা হয়। এগুলি আকারে ছোট দানার মত হওয়ায় সহজেই পাচার করা সম্ভব। জিজ্ঞাসাবাদ করার পর এদিন বিকেলে ওই ৬জনকে গ্রেফতার করা হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে অভিযুক্তদের গাড়িটিও।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে ধৃতদের নাম পিয়ারুল ইসলাম (৪০), সাদিকুল শেখ (৩১), কার্তিক নাইডু (২৭), রাকেশ থাপা (২৬) ও প্রভাতি দেবী ওরফে পবিত্রী দেবী জয়সওয়াল ওরফে চাচী (৭২)। এদের মধ্যে পিয়ারুল ও সাদিকুল মুর্শিদাবাদের সুতির বাসিন্দা, কার্তিক ও রাকেশ মনিপুরের তেংনুপাল থেকে আসে।

ধৃত মহিলা অসমের করবির বাসিন্দা। ধৃতদের জেরা করে জানার চেষ্টা চলছে তারা এদিন কোথা থেকে এবং কিভাবে এই বিপুল পরিমান মাদক নিয়ে শহরে এসেছিল। লালাবাজার সুত্রে খবর, কলকাতায় এর আগেও বহুবার মাদক উদ্ধার হলেও সাম্প্রতিক সময় এত বেশি পরিমান মাদক উদ্ধারের ঘটনা এই প্রথম।