অমিত শাহের রাজ্য সফরে গীতা মাহালিকে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র দিল রাজ্য সরকার

অমিত শাহের রাজ্য সফরে  গীতা মাহালিকে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র দিল রাজ্য সরকার

গতকাল রাজ্য সফরে এসেছেন অমিত শাহ। এবং তিনি আসতেই ফের আদিবাসী ও মতুয়াদের নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হল বিজেপি ও তৃণমূলে। তিন বছর আগে শিলিগুড়ি মহাকুমার নকশালবাড়ির যে বাড়িতে অমিত শাহ মধ্যাহ্নভোজে সেরেছিলেন।

এবং তাদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ছিলেন। কিন্তু অমিত শাহ চলে যাওয়ার পর আর কেউ খোঁজ রাখেনি বলে আক্ষেপ করেছিল মাহালি পরিবার। পরের দিন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব গিয়েছিলেন। এবং পাশে থাকার ও চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

সেই বাড়ির সদস্য গীতা মাহালিকে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র দিল রাজ্য সরকার। এদিন নকশালবাড়ি থানায় গীতা মাহালির হাতে হোমগার্ডের চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়। যদিও চাকরি পেয়ে খুবই খুশি হন গীতা মাহালি। এবং রাজু মাহালি বলেন যে বেজেপি এসে খাওয়া দাওয়া করে গেছে। কিন্তু তারপর আর কোন খোঁজ নেয়নি আমাদের।

এবং আমার স্ত্রী এই চাকরি পাওয়াতে আমি খুব খুশি। অপরদিকে এই বিষয়ে দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি রঞ্জন সরকার বলেন যে এই মহালি আদিবাসী পরিবারের বাড়িতে এসে ছিলেন। এবং মধ্যাহ্নভোজ করেছিলেন।

এর পাশাপাশি নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। না বিজেপি না মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কেউ এই পরিবারের পাশে দাঁড়ায়নি। এবং আজকে আরেকবার প্রমাণ হল বিজেপি যে ভন্ড রাজনীতি করে। বাংলায় লোক দেখানো রাজনীতি করে সেই প্রমাণিত হল।

এবং এই পরিবারের এক সদস্য গীতা মাহালিকে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে চাকরি দেওয়া হল। এর থেকে প্রমাণ হল যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেন না। তিনি যা বলেন তা করে দেখান মুখ্যমন্ত্রী।