দীর্ঘ আয়ু চান? তাহলে এই কাজটি করুন

দীর্ঘ আয়ু চান? তাহলে এই কাজটি করুন

আজ বাংলা: দীর্ঘ আয়ু চান? তাহলে খাবারে রাখুন মাখন। হ্যাঁ শুনতে অবাক লাগলেও এটা সত্যি। 

আমরা ছোটবেলা থেকেই শুনে আসা, একটা নির্দিষ্ট বয়সের পর নাকি ঘি, মাখন থেকে দূরে থাকাই উচিত ৷ বয়স বাড়লে, তৈলাক্ত খাবার একেবারেই নয় । এমনকী, অনেক সময় চিকিৎসকরাও বলে থাকেন, হৃদপিন্ড ভালো রাখতে তেলযুক্ত খাবার থেকে দূরে থাকাই ভালো ৷

কোলেস্টেরল, সুগার, রক্তচাপ সব ক্ষেত্রেই তেলকেই দোষ দিয়ে থাকেন ডাক্তাররা। তবে নতুন গবেষণায় যা উঠে এসেছে তা রীতিমতো আপনাকে চমকে দিতে বাধ্য।

নিয়মিত মাখন খেলে নাকি হৃদপিন্ড খারাপ নয়, উলটে এড়ানো সম্ভব হবে হৃদরোগ ! ভাবতে বা শুনতে অবাক লাগলেও মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় এসেছে এরকমই তথ্য ৷ এই গবেষণা অনুযায়ী, মাখনের পরিবর্তে অনেকেই বেছে নিয়েছেন মার্জারিন আর অন্যদিকে অলিভ ওয়েলকে বেছে নিয়েছেন রান্নার তেল হিসেবে ৷

 চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, অলিভ ওয়েল ও মার্জারিনে মাখন বা সরষের তেলের তুলনায় রয়েছে বেশিমাত্রায় ফ্যাট ৷ যা শরীরের পক্ষে মোটেই ভালো নয় ৷ সঙ্গে গবেষণায় এসেছে, মাখনের মধ্যে থাকা ‘ডেয়ারি ফ্যাট’ ৷ হৃদপিন্ডের পক্ষে ভালো ৷

এছাড়া ডাক্তাররা অবশ্য জানিয়েছেন, মাখন নিয়মিত খাওয়া নিশ্চয়ই ভালো ৷ কিন্তু পরিমাণ অবশ্যই হবে অল্প ।