হাঁসখালি গণধর্ষণকাণ্ডে থানার OC-র বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য লিগ্যাল সেলের কনভেনারের

হাঁসখালি গণধর্ষণকাণ্ডে  থানার OC-র বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য লিগ্যাল সেলের কনভেনারের

নদিয়ার হাঁসখালি গণধর্ষণকাণ্ডে এবার সরাসরি থানার OC-র বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন লিগ্যাল সেলের কনভেনার সুস্মিতা সাহা দত্ত। গোটা ঘটনায় হাঁসখালি থানার OC সমানভাবে দোষী বলে দাবি জানালেন তিনি। রবিবার হাঁসখালিতে নির্যাতিতার বাড়িতে এসেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই মন্তব্য করেন লিগ্যাল সেলের কনভেনার তথা নির্যাতিতা পক্ষের আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত।

তাঁর কথায়, “এই ঘটনায় তিনিও (হাঁসখালি থানার OC) সমানভাবে দোষী।” শুধু হাঁসখালি থানার OC নন, সমগ্র রাজ্যেই একই ঘটনা ঘটছে বলেও তোপ দাগেন তিনি। আইনজীবী বলেন, “হাঁসখালির পাশাপাশি সমগ্র রাজ্যেই একই ঘটনা ঘটছে। যেখানে শাসকদল আছে, সেখানেই সমস্ত অভিযোগ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।” এপ্রসঙ্গে নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগ প্রথমে থানায় না নেওয়ার ঘটনাও তুলে ধরেন তিনি।

 নদিয়ার হাঁসখালি মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা CBI মামলাটির তদন্তভার নিয়েছে। ইতিমধ্যে গ্রেফতার হয়েছেন মূল অভিযুক্তর বাবা তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা। কিছুদিন আগে পর্যন্ত নির্যাতিতার পরিবারকে মামলাটি তুলে নেওয়ার ব্যাপারে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। যদিও সেই হুমকিতে কর্ণপাত করেনি নির্যাতিতার পরিবার।

বর্তমানে তৃণমূল নেতা গ্রেফতার হওয়ার পর নির্যাতিতার পরিবার কতটা নিরাপদে রয়েছেন, তা চাক্ষুষ করতেই এদিন সকালে হাঁসখালিতে নির্যাতিতার বাড়িতে আসেন লিগ্যাল সেলের কনভেনার তথা নির্যাতিতা পক্ষের আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত। তিনি হাঁসখালিতে এসে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে কথা বলেন। তাঁদের আর কোনও সমস্যার বা কোনও হুমকির সম্মুখীন হতে হয়েছে কিনা সে ব্যাপরে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

এলাকাবাসীর সঙ্গেও কথা বলেন। তারপরই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সুস্মিতা সাহা দত্ত। তাঁর নিশানা থেকে বাদ যায়নি রাজ্যের শাসকদলও।যেখানে নির্যাতিতার পরিবার ইতিমধ্যে হুমকির সম্মুখীন হয়েছে এবং বিষয়টি প্রশাসনকে জানিয়েছে, সেখানে পুলিশের তরফে তাঁদের কোনও নিরাপত্তা দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তোলেন আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “এখানে পুলিশ থাকা প্রয়োজন। অথচ পুলিশ নেই। রাতেও পুলিশ পেট্রোলিং নেই।”