ফেসবুক, গুগলকেও এবার হাজিরা দিতে হবে সংসদীয় কমিটির সামনে

ফেসবুক, গুগলকেও এবার হাজিরা দিতে হবে সংসদীয় কমিটির সামনে

টুইটারের পর ফেসবুক, গুগলকেও এবার হাজিরা দিতে হবে সংসদীয় কমিটির সামনে। অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলির অপব্যবহার রুখতে ও নাগরিকদের অধিকার সুরক্ষা করতে কতটা তত্‍পর ফেসবুক ও গুগল, তা এবার জানতে চাইল সংসদীয় স্ট্যান্ডিং কমিটি। মঙ্গলবার ওই দুই সংস্থাকেই কমিটির সামনে হাজির হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কংগ্রেস নেতা শশী থারুরের নেতৃত্বে গঠিত এই কমিটি সাধারণ নাগরিকদের অধিকার রক্ষা করতে এবং অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলির অপব্যবহার রুখতে, বিশেষত ডিজিটাল মাধ্যমে নারী সুরক্ষা কতখানি, তা নিয়ে এই দুই সংস্থার মতামত জানতে চেয়েছে। ১০ দিন আগে মাইক্রো ব্লগিং সংস্থা টুইটারও একই কারণ ব্যাখ্যা করতে সংসদীয় কমিটির সামনে হাজির হয়েছিল।

তখন টুইটার কর্তৃপক্ষকে স্পষ্ট বলা হয়েছিল যে, ভারতের আইন মেনেই তাদের চলতে হবে। সংস্থার মুখপাত্রও পরে জানান যে, তারা সর্বসম্মতভাবে ভারতীয় আইন মেনেই অনলাইনে নাগরিকদের অধিকার সুরক্ষার কাজ করবেন। টুইটারের নিজস্ব তিন নীতি- তথ্যের স্বচ্ছতা, মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও গোপনীয়তার কথাও উল্লেখ করা হয়। এবার ফেসবুকের আধিকারিকদের সশরীরে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হলেও সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, করোনাবিধির কারণে কোনও বৈঠকে সরাসরি উপস্থিতি সংস্থার নিয়মবিরুদ্ধ।

তারা ভিডিও কলে যাবতীয় প্রশ্নের জবাব দিতে পারে। কিন্তু কমিটির প্রধান শশী থারুর জানান, এই ধরনের জরুরি আলোচনা ভিডিও কলে হতে পারে না, সংবিধানে তার বিধান নেই। সুতরাং সংস্থার আধিকারিকদের কমিটির সামনেই হাজির হতে হবে। প্রয়োজনে তাদের টিকাকরণের ব্যবস্থাও করা হবে।