কলকাতায় ফের গ্রেপ্তার ভুয়া পুলিশ অফিসার

কলকাতায় ফের গ্রেপ্তার ভুয়া পুলিশ অফিসার

ফের কলকাতায় ধরা পড়ল ভুয়ো পুলিশ অফিসার। হেলমেট না থাকায় ট্রাফিকের মামলা করতে গিয়েই 'পুলিশ' বলে পরিচয় দেয় রাজীব চক্রবর্তী নামে ওই যুবক। আর তারপরই ভুয়ো পরিচয়পত্র দেখাতেই ফাঁস হয়ে যায় আসল চেহারা। তখনই ধরা পড়ে যায় সে। গত জুন মাস থেকে পর পর কলকাতায় ধরা পড়েছে ভুয়ো আইএএস, ভুয়ো আইপিএস, ভুয়ো স্ট্যান্ডিং কাউন্সিল, ভুয়ো পুলিশ অফিসার ও সরকারি কর্তা। এবার ফের ধরা পড়ল ভুয়ো পুলিশ অফিসার।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার দুপুরে টালিগঞ্জ ট্রামডিপোর কাছে একটি বাইকে করে হেলমেটবিহীন দুই আরোহীকে আসতে দেখেন দক্ষিণ কলকাতার রিজেন্ট পার্ক ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট পার্থসারথী দত্ত। সার্জেন্ট বাইক চালককে হেলমেট নিয়ে প্রশ্ন করতেই সে জবাব দেয়, তার নাম রাজীব চক্রবর্তী। সে কলকাতা পুলিশের অ্যাসিসট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর। গোয়েন্দা দপ্তরে কর্মরত। এতে সার্জেন্টের সন্দেহ হলে তিনি তার পরিচয়পত্র দেখতে চান। তখন সে 'কলকাতা পুলিশ এনরোলমেন্ট কমিটি'র পরিচয়পত্র দেখায়।

তাতে কলকাতা পুলিশের লোগো দেওয়া। নিচে কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police) তথা রাজ্য পুলিশের এক প্রাক্তন শীর্ষকর্তার জাল সই। পরিচয়পত্রটি দেখেই ওই ট্রাফিক সার্জেন্ট বুঝতে পারেন যে, সেটি আসল নয়। এরপরই উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়। রাজীবের সঙ্গীকে অবশ্য ছেড়ে দেওয়া হয়। ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে রাজীবকে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

পুলিশ তাকে জালিয়াতির অভিযোগে গ্রেপ্তার করে। জানা গিয়েছে, সে উত্তর শহরতলির বরানগরের রাইমোহন ব্যানার্জি রোডের বাসিন্দা। সে ওই অঞ্চলের বাসিন্দাদেরও নিজেকে পুলিশ অফিসার বলে পরিচয় দিত। কলকাতা বা তার আশপাশের লোকজনকে পুলিশ বলে পরিচয় দিয়ে তোলাবাজি করত কি না, তা জানার চেষ্টা হচ্ছে। তার বাড়িতেও তল্লাশি চালানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।