স্বামীর মৃত্যুর সাড়ে চার মাস পর প্রয়াত সৌমিত্র জায়া দীপা চট্টোপাধ্যায়

স্বামীর মৃত্যুর সাড়ে চার মাস পর প্রয়াত সৌমিত্র জায়া দীপা চট্টোপাধ্যায়

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর সাড়ে চার মাস পরে চলে গেলেন প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী দীপা চট্টোপাধ্যায়। রবিবার ভোররাতে সল্টলেকের এক হাসপাতালে মৃত্যু হয় সৌমিত্র জায়ার। বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। রেখে গেলেন ২ সন্তান সৌগত চট্টোপাধ্যায় ও পৌলমী বসুকে।  কিডনি বিকল হয়ে রবিবার রাত ২.৫৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। অসুস্থতার কারণে ভর্তি ছিলেন বিধাননগরের একটি হাসপাতালে।

গত নভেম্বরেই পৌলমী হারিয়েছেন তাঁর বাবাকে। তাঁর কথায়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় চলে যাওয়ার পরেই বাঁচার সমস্ত আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছিলেন দীপা। এছাড়াও, ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন ৪৫ বছর ধরে। ১৯৬০ সালে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিয়ে হয় তুখোড় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় দীপার।  বেশকিছু ধরেই অসুস্থ ছিলেন দীপা চট্টোপাধ্যায়, হাসপাতালেই চিকিত্সা চলছিল। অবশেষে সব লড়়াইয়ে ইতি টেনে এদিন প্রয়াত হন তিনি।

১৯৬০ সালের ১৮ এপ্রিল মাসে বিয়ে হয়েছিল সৌমিত্র-দীপার। সৌমিত্রর পারিবারিক জীবনে ঠিক পর্বতের মতো মহীয়ান ছিলেন দীপা দেবী। সৌমিত্র সাফল্যের অন্যতম কাণ্ডারি তিনি, হাতে গোনা ছবিতে অভিনয় করেছেন দীপা চট্টোপাধ্যায়ও।যার মধ্যে উল্লেখ্য, ‘বিলম্বিতলয়’, ‘গাছ’ ও 'দূর্গা'। পর্দার ‘অপু’র সঙ্গে ছিল তাঁর সাজানো সংসার। দীর্ঘ ছয় দশকের দাম্পত্য জীবনে ইতি টেনে আগে চলে গেলেন সৌমিত্রবাবু, আর মাস খানেকের মধ্যেই না ফেরবার দেশে দীপা চট্টোপাধ্যায়। রেখে গেলেন কন্যা পৌমলী বসু ও পুত্র সৌগত চট্টোপাধ্যায়কে।