গরম থেকে মুক্তি? বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেনে নিন আবহাওয়ার

গরম থেকে মুক্তি? বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেনে নিন আবহাওয়ার

  গরমে নাজেহাল সাধারণ মানুষ Weather Update west Bengal। এই পরিস্থিতিতে স্বস্তির বৃষ্টি চাইছে সকলেই। আজ রাজ্যে বেশ কিছু জেলায় রয়েছে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। দিনভর কেমন থাকবে আবহাওয়া? কী বলছে হাওয়া অফিস? রইল আজকের আবহাওয়ার আপডেট।  দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা না থাকলেও আজও স্বস্তির বৃষ্টি প্রত্যক্ষ করবে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলি।

বরং দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় রয়েছে তাপপ্রবাহের সম্ভাবনা। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “৩১ তারিখ সকাল সাড়ে আটটার পর থেকে দু’দিন রাজ্যের চার জেলা পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়াতে তাপপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থাৎ এই জেলাগুলিতে তাপমাত্রা ছোঁবে ৪০ ডিগ্রি।”  আগামী তিন দিন দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আবহাওয়ার বড় বদল নেই।

কিন্তু, বৃহস্পতিবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের তিন জেলাতে। এই জেলাগুলি হল- বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়া। তবে সামান্য থেকে অতি সামান্য বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। বাকি জেলাগুলিতে বাড়বে তাপমাত্রার পারদ। অস্বস্তি বাড়াবে আপেক্ষিক আর্দ্রতা।  শহর কলকাতাতে তাপমাত্রার পারদ ক্রমশ বাড়ছে। গতকাল শহরের আকাশ আংশিক মেঘলা থাকলেও বৃষ্টিপাত হয়নি।

বৃহস্পতিবারই কি ভিজতে পারে কলকাতা? কী বলছে হাওয়া অফিস? এই বিষয়ে বিশেষ আশার কথা শোনাতে পারছে না হাওয়া অফিস। এদিন কলকাতাতে নেই বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  

উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ঝেঁপে নামবে বৃষ্টিপাত। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, এদিন উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলা দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ারে রয়েছে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।  কেন্দ্রীয় মৌসম ভবনের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী পাঁচ দিনে বদলাতে চলেছে আবহাওয়া।

তাপপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে গুজরাট, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব, দক্ষিণ হরিয়ানা, বিহারেও। তবে রাজ্যে এখনও কালবৈশাখীর পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। আগামী মাসের শুরুর দিকে আরও বাড়তে পারে তাপমাত্রার পারদ, জানা গিয়েছে এমনটাই। একইসঙ্গে ঝড় বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। এই মুহূর্তে এমন কোনও সিস্টেম নেই যার দরুণ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাত হতে পারে।