কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গ্রেনেড হামলা, আহত অন্তত ১২ নাগরিক

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গ্রেনেড হামলা, আহত অন্তত ১২ নাগরিক

জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গ্রেনেড হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ১২ জন সাধারণ নাগরিক। দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় এই গ্রেনেড হামলা হয়েছে আজ। সেনাবাহিনী সূত্রে খবর, পুলওয়ামার কাকাপোরা চক এলাকায় এই গ্রেনেড হামলা হয়েছে।

জঙ্গিদের নিশানায় ছিলেন একদল নিরাপত্তারক্ষী। কিন্তু কোনওভাবে রাস্তার উপরেই ফেটে যায় গ্রেনেড। সূত্রের খবর, সিআরপিএফ জওয়ানদের লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুড়েছিল জঙ্গিরা। তবে এই ঘটনায় সেনা জওয়ানদের তরফে কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

গ্রেনেড হামলার পরই আহতদের উদ্ধার করে সেনাবাহিনী। দ্রুত তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। এখনও এই হামলার দায় স্বীকার করেনি কোনও জঙ্গি সংগঠন। কে বা কারা এই হামলায় যুক্ত তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে সেনাবাহিনী। হামলাকারী জঙ্গিরা এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে কিনা তা দেখতে গোটা এলাকা জুড়ে চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছেন নিরাপত্তারক্ষীরা।

নজর রয়েছে লাগোয়া সীমান্ত এলাকাতেও। যাতে কোনও ভাবেই কোনও জঙ্গি পালাতে না পারে।এর আগে গত ৮ নভেম্বর উত্তর কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলা মছিল সেক্টর বরাবর জঙ্গি অনুপ্রবেশ রুখতে গিয়ে এক ভারতীয় সেনা জওয়ান এবং বিএসএফের এক কনস্টেবল-সহ মোট তিন জওয়ান, অর্থাত্‍ মোট চারজন শহিদ হয়েছেন।

খতম হয়েছিল ৩ জঙ্গিও। সেনার তরফে জানানো হয়েছে, এপ্রিল থেকে এখনও পর্যন্ত এ বছরের সবচেয়ে বড় এনকাউন্টার এটিই।এছাড়াও সম্প্রতি নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর পাক গোলা, বারুদ বর্ষণে শহিদ হয়েছেন পাঁচ সেনা জওয়ান। তাঁদের মধ্যে ছিলেন এক বিএসএফ জওয়ান। পাকিস্তান সেনাবাহিনী যুদ্ধ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করায় মৃত্যু হয়েছে চার জন সাধারণ নাগরিকেরও। তাদের মধ্যে ছিল সাত বছরের এক বালক। পাল্টা হামলায় পাক সেনাবাহিনীর ৬ থেকে ৮ জন নিহত হয়েছেন বলে খবর।