বাড়িতে সহজেই বানিয়ে ফেলুন চিকেন টিকা রেসিপি

বাড়িতে সহজেই বানিয়ে ফেলুন চিকেন টিকা রেসিপি

আজ বাংলা: চিকেন খেতে কে না পছন্দ করে। আমরা বিভিন্ন সময়ে চিকেনের বিভিন্ন রকমের পদ চেখে দেখেছি। এই মুরগি দিয়ে কত রকমের মজাদার খাবার যে তৈরি হয় রসনাবিলাসী বাঙালি হেঁসেলে! সাধারণত বিফ কিংবা মাটন দিয়ে টিকিয়া বানানো হয়।কিন্তু চিকেন দিয়েও খুব সহজ রেসিপিতে মজাদার টিকিয়া বানিয়ে নেওয়া যায়। তাহলে আসুন দেখে নিন কী করে বানাতে হয় চিকেন টিকা রেসিপি ।

উপকরণ

মুরগির বুকের মাংস ৫০০ গ্রাম

ছোলার ডাল- ১/২ কাপ

আদা বাটা- ১ চা চামচ

রসুন বাটা- ১ চা চামচ

জিরা গুঁড়ো- ১/২ চা চামচ

পেঁয়াজ কুঁচি- ১ টেবিল চামচ

কাঁচামরিচ কুঁচি- ১ চা চামচ

গোলমরিচের গুঁড়ো- ১/২ চা চামচ

ডিম- ১টি

গরম মসলার গুঁড়ো- ১/২ চা চামচ

লবণ- স্বাদ অনুযায়ী

তেল- ভাজার জন্য

রান্নার পদ্ধতি: প্রথমে সামান্য জল দিয়ে ছোলার ডাল সেদ্ধ করে নিতে হবে। আর মুরগির বুকের মাংস মিহি কিমা করে নিন।এবার একটি প্যানে তেল দিয়ে গরম করে তাতে লবণ, চিকেন কিমা, আদা বাটা, রসুন বাটা, জিরা গুঁড়ো ও গরম মশলার গুঁড়ো দিয়ে দিন।সব মশলার সঙ্গে মুরগির মাংসের কিমা খুব ভালোভাবে কষিয়ে নিতে হবে। চিকেন কিমা সেদ্ধ হয়ে গেলে চুলা বন্ধ করে দিন।

এরপর মিশ্রণটি ঠাণ্ডা হয়ে গেলে এতে সেদ্ধ করে রাখা ছোলার ডাল মিশিয়ে দিন। তারপর একে একে পেঁয়াজ কুঁচি, কাঁচামরিচ কুঁচি ও গোলমরিচের গুঁড়ো দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে নিন।এবার একটি ডিম ফাটিয়ে নিয়ে চিকেনের মিশ্রণে যোগ করুন। সব উপকরণ একসাথে চটকিয়ে নিতে হবে। এবার হাতের তালুতে একটু তেল মেখে চিকেনের এই মিশ্রণ থেকে একটু করে নিয়ে টিকিয়ার আকারে শেইপ দিয়ে দিন। আপনার পছন্দ অনুযায়ী ছোট বা মাঝারী আকারে টিকিয়ার শেপ করে নিবেন।

অন্যদিকে একটি প্যানে তেল গরম করতে দিন। তেল গরম হয়ে আসলে টিকিয়াগুলো আস্তে আস্তে এতে ছেড়ে দিন। চিকেন টিকিয়াগুলো ডীপফ্রাই করতে পারেন অর্থাৎ ডুবো তেলে ভাজতে পারেন। আবার অল্প তেল দিয়েও ফ্রাই করে নিতে পারেন। মাঝারী আঁচে টিকিয়াগুলো ভেজে নিন। একপাশ ভাজা হয়ে গেলে সাবধানে উলটিয়ে দিন।

এখানে বলে রাখা দরকার, যেহেতু ছোলার ডাল ও মুরগির কিমা আগেই সেদ্ধ করে নেওয়া, তাই খুব বেশি সময় ধরে ভাজার দরকার নেই! গোল্ডেন কালার হয়ে গেলেই তেল থেকে নামিয়ে কিচেন টিস্যুতে রাখুন।ব্যস, চিকেন টিকা তৈরি হয়ে গেলো! পোলাও বা গরম গরম ভাতের সঙ্গে এটি দারুণ মানিয়ে যাবে। আবার বিকালে স্ন্যাকস হিসাবেও পছন্দের সসের সঙ্গে পরিবেশন করতে পারবেন সুস্বাদু এই আইটেমটি।