ফলহারিণী কালী পুজোর ইতিহাস ও মায়ের মহিমা

ফলহারিণী কালী পুজোর ইতিহাস ও মায়ের মহিমা

জ্যৈষ্ঠমাসের অমাবস্যা তিথিতে ফলহারিণী মাতারূপে দেবী কালী পূজিতা হন। ধরিত্রীজাত ফলের সঙ্গে এই মাতৃপুজোর কোনও সম্পর্ক নেই। এই ফল মানবজাতির কর্মফলের কথা স্মরণ করায়। জ্যৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যা তিথিতে মা কালীকে ফলদান করলে ফল প্রাপ্তি হয়। জ্যৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যা ফলহারিণী অমাবস্যা। শাস্ত্রমতে ফলহারিণী কালীপূজা কর্মফল হরণ করে যোগফল প্রদান করে। ফলহারিণী কালীপূজা করলে অর্থভাগ্য, কর্ম, বিদ্যা, দাম্পত্য এবং প্রেম প্রণয়ের ক্ষেত্রে শুভ ফল প্রাপ্ত হয়।

ভাবব্যাখ্যা–মানুষ কেবলমাত্র কর্ম করার অধিকারী। কিন্তু ওই কর্মসমূহের ফল দান করার অধিকারিণী একমাত্র বিধাতাস্বরূপা দেবী কালিকা। কর্ম করলে সুকর্ম এবং কুকর্ম দুটিই সৃষ্ট হয়। উল্লিখিত ওই বিশেষ দিনটিতে মা স্বয়ং ভক্তদের সুকর্মের জন্য আশীর্বাদ প্রদান করেন। অপরদিকে সন্তানের কুকর্মের জন্য উদ্ভূত অশুভ ফলের প্রভাব থেকে তিনিই আবার সন্তানদের মুক্ত করেন।

অর্থাৎ ওই দিনে মা স্বয়ং যেমন সন্তানদের শুভ ফল প্রদান করেন, তেমনি তিনি সন্তানদের অশুভ ফলও হরণ করে থাকেন। সেই কারণে জ্যৈষ্ঠ অমাবস্যায় মা কালী ফলহারিণী মাতারূপে পূজিতা হন। শ্রীশ্রী চণ্ডীতে উল্লেখ্য একটি বিশেষ মন্ত্রের সূত্র থেকে জানা যায়– ঋষি মার্কণ্ড স্বয়ং মাকে বলেছেন– “মৎসমঃ পাতকী নাস্তি পাপাঘ্নী ত্বৎসমা ন হি। এবং জ্ঞাতা মহাদেবি যথাযোগ্যং তথা করু।।”

ঋষি দেবীমাকে বন্দনা করে বলেছেন, “হে মহাদেবী, আমার মতো পাতকী কেউ নেই আর তোমার মতো পাপহারিণীও কেউ নেই, একথা মনে রেখে যা ভাল বোঝ তাই করো।” মার্কণ্ড ঋষির রচিত ওই মন্ত্রসূত্রটি ধরে আসুন না আমরা সবাই সম্মিলিতভাবে কর্মফলের প্রতীকস্বরূপ একটি ফল মায়ের চরণ কমলে অর্পণ করে বলি– মাগো আমার ভালমন্দ, বৈধ অবৈধ, তিক্ততা, মধুরতা সবই তোমার শ্রীচরণে নিবেদন করে দিলাম।

এবার যে ফল আমার প্রাপ্য সেটাই আমাকে দিও। মনে মনে বলি– কে তুমি জানি না, জানিতে চাহি না, শুধু জানি তুমি আছ মা। জীবন, মরণ, পাপপুণ্য, ভালমন্দ সবই তো তোমার দ্বারাই সৃষ্ট। সেইজন্য তোমার সম্পূর্ণ মহিমা কীর্তন করা আমার সাধ্যাতীত।এই তিথিতে শ্রীরামকৃষ্ণ শ্রীমা সারদাকে ষোড়শী রূপে পূজা করেছিলেন। আগামী ২৫ জ্যৈষ্ঠ, ৯ জুন বুধবার শ্রী শ্রী ফলহারিণী কালীপূজা।

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে—

অমাবস্যা তিথি আরম্ভ–

বাংলা- ২৫ জ্যৈষ্ঠ, বুধবার।

ইংরেজি– ৯ জুন, বুধবার।

সময়– দুপুর ২টো।

অমাবস্যা তিথি শেষ–

বাংলা– ২৬ জ্যৈষ্ঠ, বৃহস্পতিবার।

ইংরেজি– ১০ জুন, বৃহস্পতিবার।

সময়– বিকেল ৪টে ২৩ মিনিট

গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে—

অমাবস্যা তিথি আরম্ভ–

বাংলা– ২৫ জ্যৈষ্ঠ, বুধবার।

ইংরেজি– ৯ জুন, বুধবার।

সময়– দুপুর ১টা ৩২ মিনিট ২১ সেকেন্ড।

অমাবস্যা তিথি শেষ–

বাংলা– ২৬ জ্যৈষ্ঠ, বৃহস্পতিবার।

ইংরেজি– ১০ জুন, বৃহস্পতিবার।

সময়– দুপুর ৩টে ২৮ মিনিট ১১ সেকেন্ড।