অভিজাত হোটেলে মধুচক্রের পর্দাফাঁস, গ্রেপ্তার মডেল

অভিজাত হোটেলে মধুচক্রের পর্দাফাঁস, গ্রেপ্তার মডেল

মুম্বইয়ের (Mumbai) অভিজাত হোটেলে বড়সড় মধুচক্রের পর্দাফাঁস। ঘটনাস্থলেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৩২ বছরের এক মডেলকে। ২ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলেও খবর। শোনা গিয়েছে, ধৃত মডেল টেলিভিশনের কয়েকটি সিরিয়ালেও অভিনয় করেছেন। পাশাপাশি সাবানের বিজ্ঞাপনেও তাঁকে দেখা গিয়েছে। সূত্রের খবর মানলে, আগে থেকেই মুম্বই পুলিশের (Mumbai Police) ক্রাইম ব্রাঞ্চের কাছে খবর ছিল জুহুর এক অভিজাত হোটেলে মধুচক্রের আসর বসবে।

সেখানে টাকার লেনদেনও হবে। খবর পেয়েই আগেই ঘটনাস্থলে পুলিশের অফিসাররা উপস্থিত হয়ে গিয়েছিল। হাতেনাতে ওই মডেল তথা অভিনেতাকে ধরা হয়। হিন্দি টেলিভিশনের একাধিক তারকার সঙ্গে নাকি ধৃতের যোগাযোগ রয়েছে। পাশাপাশি যে দু’জনকে উদ্ধার করা হয়েছিল, তাঁদের সঙ্গে কাজের বিনিময়ে ৪ লক্ষ টাকার চুক্তি হয়েছিল।শোনা গিয়েছে, আপাতত পুলিশি হেফাজতেই রাখা হয়ে মডেলকে।

এই ঘটনায় তাঁর সঙ্গে আর কে বা কারা জড়িতে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সূত্রের খবর মানলে, গত ফেব্রুয়ারি মাসে মধুচক্র চালানোর অভিযোগে অভিনেত্রী গেহনা বশিষ্ঠের (Gehana Vasisth) গ্রেপ্তারির পর থেকেই মুম্বই পর্নোগ্রাফি ব্যবসার অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছে পুলিশ। তার সূত্র ধরেই নাকি শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra Case) কর্মচারী উমেশ কামাতের হদিশ পান তদন্তকারী অফিসাররা।

উমেশের গ্রেপ্তারির কিছুদিন পর তথ্য প্রমাণ হাতে নিয়েই ১৯ জুলাই রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারপর বেশ কিছুদিন পুলিশি হেফাজতে ছিলেন শিল্পা শেট্টির (Shilpa Shetty) স্বামী। পরে তাঁকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়। ১৮ আগস্ট অন্তবর্তী জামিন পান রাজ কুন্দ্রা। ঘটনায় শিল্পা শেট্টিকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। রিয়ালিটি শো ‘সুপার ডান্সার ৪’ থেকেও নাকি বাদ পড়েছিলেন অভিনেত্রী। এখন অবশ্য শোয়ে কামব্যাক করেছেন তিনি।