দেখে নিন দ্রুত মনঃসংযোগ বাড়ানোর সুকৌশল

দেখে নিন দ্রুত মনঃসংযোগ বাড়ানোর সুকৌশল

আজবাংলা    আমরা প্রতিদিন বিক্ষিপ্তভাবে নানা কাজ করি। আর এ কাজগুলো অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নির্দিষ্ট পরিকল্পনা অনুযায়ী সুবিন্যস্তভাবে করা হয় না। দিনশেষে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে আপনি একরাশ অসমাপ্ত কাজের হতাশা নিয়েই বিছানায় ঘুমাতে যান।

এভাবেই আরো একটি দিন আপনার জীবন থেকে চলে যায় এবং আবারো পরের দিন সে অপূর্ণ কাজটি করার মন্ত্রে নিজেকে দীক্ষিত করে নিজেকে দেন সান্ত্বনা। অথচ কাজ করার সময় আরেকটু মনোযোগী হলে হয়তো দিনের কাজ আপনি দিনেই শেষ করতে পারতেন।

এক্ষেত্রে স্বামী বিবেকানন্দ জানিয়েছেন, ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে কর্মজীবন অবধি সাফল্যের চাবিকাঠি হল মনঃসংযোগ। আজকের প্রতিবেদন দেখে নেব কি করে মনঃসংযোগ বাড়ানো যায়।

১. মনোযোগ বাড়াতে মেডিটেশনের বিকল্প নেই। ইয়োগা, ডিপ ব্রেথ- এগুলো স্ট্রেস কমিয়ে দেবে। ২. একই কাজ সবসময় করতে থাকলে মনোযোগ কমে যেতে থাকে। একঘেয়েমি কাটাতে তাই মাঝে মধ্যে বিরতি নিন। নিজের জন্য কিছু করুন অথবা বিশ্রাম নিন। প্রকৃতির কাছাকাছি সময় কাটাতে পারেন।

৩. মনোযোগ বাড়াতে সুডোকু বা ম্যাথ গেম খেলতে পারেন। এগুলো আপনার মনোযোগ চর্চা ও ঝালিয়ে নেওয়ার অন্যতম সেরা উপায়। ৪. খাদ্যাভ্যাসের প্রতি যত্নশীল হতে হবে। সকালে ভারি খাবার দিয়ে নাস্তা করুন। অফিসের ডেস্কে জলের বোতল রাখবেন। এগুলো যেমন এনার্জি বাড়াবে, তেমনি দিনভর ফুরফুরে রাখবে আপনাকে।

৫. কোনও গুরুত্বপূর্ণ কাজ শুরু করার আগে সম্ভব হলে মুঠোফোন সাইলেন্ট করে দিন। এতে মনোযোগের ব্যাঘাত ঘটবে না। ৬. কাজ শুরু করার আগে কখন কী করবেন সেটা গুছিয়ে লিখে নিন নোটবুকে। এতে অনেকটাই চাপমুক্ত বোধ করবেন।

৭. একসাথে অনেক কাজ করতে যাবেন না। একটি কাজ ঠিকমতো শেষ করে খানিকক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে তবেই দ্বিতীয় কাজ শুরু করুন। কারণ মস্তিষ্ক একই সময়ে একাধিক বিষয়ে ব্যস্ত থাকতে পারে না। ৮. নিয়মিত ঘুম ভীষণ জরুরি। এতে মস্তিষ্ক ঠিকঠাক সঙ্গ দেবে আপনার।