এবার খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন পাউরুটি চিকেন পিজ্জা

এবার খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন পাউরুটি চিকেন পিজ্জা

আজবাংলা   কিছুদিন আগেও রেস্টুরেন্টে পরিবার, বন্ধু বা কলিগদের সাথে আড্ডা দিতে দিতে চা বা ফাস্টফুড খাওয়াটা ছিল নিত্য ঘটনা। কিন্তু এই করোনার আসার পর থেকে লকডাউন থেকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকে পছন্দের ফাস্টফুড খাবারগুলো অনেক বেশি মিস করছেন, অনেকেই।

তবে, অনেকেই আছেন যারা পিজ্জা খেতে খুব ভালোবাসেন। কিন্তু সেটি পেতে গেলে রেস্তোরাঁ যেতে হবে। কিন্তু এই রান্নাটি এখন খুব সহজেই বাড়িতেই করে ফেলা সহজ। আসুন দেখে নেওয়া যাক, এটি বানাতে কি কি উপকরন লাগবে। 

এক্ষেত্রে, পাউরুটির পিজ্জা বানানোর জন্যে প্রথমে আমাদের চিকেন পুরের জন্য উপকরণ নিতে হবে। এরপর টপিং রেডি করতে হবে। চলুন তাহলে ধাপে ধাপে জেনে নেই কী কী লাগছে এটি বানাতে।

উপকরনঃ  মুরগির মাংস কিমা- ২৫০ গ্রাম (হাড় ছাড়া), পেঁয়াজ কুঁচি- ১ কাপ, কাঁচা লঙ্কা কুঁচি- ৪ টা, নুন- ১/২ চা চামচ, লাল লঙ্কার গুড়া- ১/২ চা চামচ, গোলমরিচ গুড়া- ১/২ চা চামচ, আদা বাটা- ১/২ চা চামচ, রসুন বাটা- ১/২ চা চামচ, ইনস্ট্যান্ট নুডলসের মশলা- ২ প্যাকেট।

সয়াবিন তেল বা অলিভ অয়েল- ৩ টেবিল চামচ, টপিংয়ের জন্য যা যা লাগবে- ক্যাপসিকাম স্লাইস করে কাটা- ১ টা, পেঁয়াজ কুঁচি- ২ টা, টমেটো স্লাইস করে কাটা- ১ টা, মোজারেলা চিজ গ্রেট করা- ১/২ কাপ, সস- প্রয়োজন মত (যেকোনো সস ইউজ করা যাবে), মেয়োনিজ- প্রয়োজন অনুযায়ী, ব্ল্যাক অলিভ কুঁচি- ১/২ কাপ (অপশোনাল)।

প্রণালীঃ   প্রথমে কড়াইয়ে সয়াবিন তেল বা অলিভ অয়েল দিয়ে নিবো। তেল হালকা গরম হলে তাতে পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে লাল লাল করে ভেজে নিতে হবে। কুঁচি করে রাখা লঙ্কা দিয়ে আরও একটু নাড়তে হবে। উনুনের তাপ কমিয়ে নাড়বেন। এবার কড়াইতে চিকেন কিমা দিয়ে দিন। পেঁয়াজ কুঁচি এবং লঙ্কাকুঁচির সাথে ভালোভাবে নেড়ে মিশিয়ে নিতে হবে।

এরপর একে একে সব মশলা দিয়ে নাড়তে হবে। মশলা কষিয়ে নেয়ার পর তাতে পরিমাণমতো গরম জল দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে কিছুক্ষণ। মাঝে মাঝে ঢাকনা খুলে নেড়ে দিতে হবে। জল শুকিয়ে যখন তেল উপরে উঠে আসবে তখন উনুন বন্ধ করে কড়াই নামিয়ে রাখতে হবে। চিকেন সেদ্ধ হতে খুব বেশী সময় লাগে না, বেশ তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে।

টপিং তৈরিঃ  কড়াইয়ে তেল দিয়ে পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম এবং টমেটো ভেজে নিবো। পাতলা স্লাইস করে কাটলে আগে থেকে না ভাজলেও চলবে। হালকা ভাজা ভাজা হলে তাতে সামান্য নুন ও ইনস্ট্যান্ট নুডলসের মশলা দিয়ে নেড়ে নামিয়ে নিতে হবে। খুব বেশি ভাজা যাবে না, এতে পুষ্টিগুণ ও কালার দুটোই নষ্ট হয়ে যায়।

এখন পাউরুটির পিস নিয়ে তাতে প্রথমে সস এবং মেয়োনিজ ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে। এর উপরে লেয়ার করে রান্না করে রাখা চিকেন ছড়িয়ে দিতে হবে। চিকেনের উপর পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম এবং টমেটো দিয়ে দিতে হবে। আপনার পছন্দ অনুযায়ী লেয়ার সাজিয়ে নিতে পারেন। সবশেষে গ্রেট করা মোজারেলা চিজ ও ব্ল্যাক অলিভ কুঁচি পাউরুটির উপর ছড়িয়ে দিতে হবে। এভাবে অন্য পাউরুটি গুলোও রেডি করে নিন।

টিপস-  সমান তাওয়া বা ফ্রাইপ্যানে অল্প তেল ব্রাশ করে নিয়ে তাতে পাউরুটির পিজ্জাগুলো বসিয়ে খুব কম আঁচে চিজ না গলা পর্যন্ত ঢেকে দিয়ে বেক করে নিতে হবে। ব্যস! খুব সহজেই তৈরি হয়ে গেলো ফ্রাইপ্যানে তৈরী মজাদার পাউরুটির পিজ্জা। যে পরিমাণে উপকরণ নেয়া হয়েছে তা দিয়ে আপনারা খুব সহজেই ১০ থেকে ১৪ পিসের মতো পাউরুটির পিজ্জা বানিয়ে নিতে পারবেন।

ভিতরের পুর অবশিষ্ট থাকলে ডিপ ফ্রিজে রেখে আবার পরেও সেটি ব্যবহার করা যাবে। যারা ওভেনের সাহায্যে পিজ্জাটি বানাতে চান, তারা প্রথমে ১৬০ ডিগ্রিতে ৫ মিনিট প্রিহিট করে নিবেন। এরপর ওভেনের ট্রেতে একটু তেল ব্রাশ করে পাউরুটির পিজ্জাগুলো সাজিয়ে নিবেন। তারপর একে ১৬০ ডিগ্রিতে ১০ মিনিট বেক করতে হবে। চিজ গুলো সম্পূর্ণ গলে গেলে বুঝে নিতে হবে আপনার পাউরুটির পিজ্জা রেডি হয়ে গেছে! ঠাণ্ডা হয়ে গেলে এটি খেতে ভালো লাগবে না! তাই, চুলা বা ওভেন থেকে নামিয়েই গরম গরম পরিবেশন করুন এই মজাদার আইটেমটি!