আচার তো খেয়েছেন। চিকেনের এই মজাদার আচার খেয়েছেন কি?

আচার তো খেয়েছেন। চিকেনের এই মজাদার আচার খেয়েছেন কি?

আজবাংলা   আচার নাম শুনলেই জিভে আসে জল। অনেক রকম আচারি আমরা খেয়ে এসেছি। তবে, আজকের প্রতিবেদনে যে আচার করা শেখাব তা একেবারে ভিন্ন। আজকে আচারটির নাম চিকেন আচার। নাম শুনেই অবাক হচ্ছেন?

খেয়ে দেখুন কেমন লাগে। চিকেন কম বেশি ছোট থেকে বড় সকলেরই পছন্দ। আশা করি এমন মিশ্রণের রান্না আপনাদের খারাপ লাগবে না। এটি সাধারণত ভালো লাগবে রুটি, পরোটার সাথে। আসুন দেখে নেওয়া যাক, এটি বানাতে কি কি লাগছে। 

উপকরনঃ  ৭৫০ গ্রাম মুরগির মাংস ছোট টুকরা করা, ২ টা বড় আকৃতির পেঁয়াজ ভালোভাবে কাটা, ৩টি বড় আকৃতির প্রতিটি টমেটো ৪ ফালি করা, ৬ টি কাঁচা লঙ্কা, ৬-৮ কোয়া রসুন খোসা ছড়ানো ও বাটা, ১ টি বড় আকৃতির আদাবাটা, ধনেপাতা পরিমান অনুযায়ী, সকল মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ,

১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ৩টি লবঙ্গ, ২টি কালো এলাচি(খোসা ছাড়া), ৪-৫টি তেজপাতা, ২/৩টি ছোট দারুচিনি, ১ চা চামচ গোটা মৌরি, ১ চা চামচ মেথি, আন্দাজমত সরষে, স্বাদমত লাল লঙ্কার গুঁড়া, প্রয়োজনমত নুন, ১-২ চা চামচ হলুদ পাউডার, পরিমানঅনুসারে ভিনেগার, ৫-৭ টেবিল চামচ ভেজিটেবিল তেল।

প্রণালীঃ   একটি প্যানে মাংস চাপিয়ে পেঁয়াজ, রসুন, আদা দিয়ে ৩০ মিনিট রান্না করুন। যখন মাংস নরম হয়ে আসবে তখন গুঁড়ো মশলা, ভেজিটেবিল তেল মিশিয়ে দিয়ে আরো ১০-১৫ মিনিট মধ্যম ভাগে রান্না করুন।

মরিচ গুঁড়ো, নুন, হলুদ দিয়ে দিন এবং মাঝে ৫ মিনিটের জন্য রান্না করুন। এবার মেথি, সরিষা, টমেটো, কাঁচামরিচ, ভিনেগার ও ধনে দিন। আরো ১০ মিনিট রান্না করুন। এখন মাংস নরম হবে। এরপর পরিবেশন করুন রূটির সঙ্গে।