টবে যেভাবে করবেন ধনেপাতার চাষ

টবে যেভাবে করবেন  ধনেপাতার চাষ

বাড়িতে বাগান করার শখ আমাদের প্রত্যেকেরই থেকে থাকে। অর্থাত্‍ আমরা প্রত্যেকেই চাই বাজারে ছোটখাটো ফসল বাড়ির মধ্যে চাষ করতে। এমন বেশ কিছু ফসল থেকে থাকে যেগুলি বাড়িতে খুব অনায়াসে চাষ করা যেতে পারে ।কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় বাড়িতে পর্যাপ্ত পরিমাণে জায়গা না থাকার দরুন আর চাষ করা হয়ে ওঠে না। তবে সে চিন্তার মুক্তির অবসান ঘটেছে এবার ।

কিভাবে জানাবো আপনাদের। আপনি যদি বাগান প্রেমী হন এবং ফসল ফলাতে চান বাড়ির মধ্যে কিন্তু বাড়িতে পর্যাপ্ত পরিমান জায়গা থাকা না থাকার দরুন আপনি হতাশ হয়ে পড়েছেন ,তাহলে আমরা বলব এবার আর হতাশ হওয়া দরকার নেই ।কারণ বাড়ির মধ্যেই আপনি আপনার পছন্দের ফসলটি চাষ করতে পারবেন এবং সেটি টবে । সে রকমই টবে চাষ হয় এমন একটি ফসলের নাম হল ধনেপাতা।

ধনে পাতার উপকারিতা সম্পর্কে আমরা প্রত্যেকে জানি কমবেশি ।এর পাশাপাশি ধনেপাতা রান্নার মধ্যে দিলে এক আলাদা মাত্রায় স্বাদ আসে । তাছাড়া আরও বিভিন্ন কাজে ধনেপাতা ব্যবহৃত হয়ে থাকে। তো চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে বাড়ির মধ্যেই মাটি ছাড়া ধনেপাতা চাষ করা যেতে পারে। প্রথমে আপনাকে নার্সারি থেকে ধনে পাতার বীজ কিনে আনতে হবে এবং বীজ গুলিকে কে ভালো ভাবে ভেঙ্গে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন সেগুলি যেন দুটি অংশে ভাঙ্গে ।এমনটা যেন না হয় যে পুরো বীজগুলো গুড়ি হয়ে গেল। 

 মাটি   সব মাটিতেই ধনের চাষ সম্ভব। তবে বেলে দোঁআশ বা এঁটেল দোঁআশ মাটি ধনে চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী। এ গাছ জলাবদ্ধতা একদমই সহ্য করতে পারে না। তাই টবে জল নিষ্কাশনের সুবিধা থাকা জরুরি। ৭০ ভাগ মাটির সঙ্গে ৩০ ভাগ কেঁচো সার তথা ভার্মিকম্পোস্ট মিশিয়ে টবের মাটি তৈরি করে নিতে পারেন। বীজ বোনার আগে এক দিন কড়া রোদে মাটি শুকিয়ে ঝুরঝুরে করে নিলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

 বীজ বপনের আগে   ধনেপাতা চাষ করতে বীজটাকে তৈরি করে নেওয়া চাই। বাজার থেকে শুকনো ধনের বীজ কিনে সেগুলোকে একদিন রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। এতে বীজের রোগবালাই দমন হবে। অন্যদিকে অঙ্কুরোদগম ক্ষমতাও বাড়বে। বীজ শুকানোর পর এগুলোকে পাথরের টুকরো দিয়ে বা হাতের হাল্কা চাপে দুই ভাগ করে ভেঙে নিতে হবে। মাটিতে বপনের আগে ধনের বীজ অবশ্যই জলেতে ভিজিয়ে রাখতে হয়। একটি ভেজা কাপড়ে ২৪ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে বীজ বপন করলে চারা দ্রুত গজাবে। চওড়া মুখের টব বা প্লাস্টিকের গামলায় মাটির ৩-৪ সেন্টিমিটার (দেড় ইঞ্চি) গভীরে বীজ বপন করতে হবে। এরপর প্রথম দফায় ভালো করে সেচ দিতে হবে।  

 পরিচর্যা মাটি শুকনো থাকলে দুই-একদিন পর পর জল দিতে হবে। কিন্তু গাছের গোড়ায় কখনই জল জমতে দেওয়া যাবে না। অনেক সময় পাখি ধনেপাতা পাতা খেয়ে ফেলে। সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। পিঁপড়ের উপদ্রব হলে প্রাথমিকভাবে সাবান জল ছিটিয়ে দেখতে হবে। এতে কাজ না হলে পাইরিফস বা পাইরিবান অথবা সেভিন ডাস্ট ছিটিয়ে দিতে হবে। সাধারণত চারা গজাতে এক সপ্তাহ থেকে দশ দিন সময় লাগে। গাছ পুরোপুরি বড় হতে এক মাসও লেগে যায়। ধনে চাষে সাধারণত বাড়তি সারের প্রয়োজন হয় না। গাছ বেশি বড় হয়ে গেলে সেই গাছের পাতার স্বাদ কমে যায়। তাই গাছ মাঝারি আকারে আসলেই পাতা তুলে ফেলুন।